১৫ আগস্ট খালেদা জিয়ার ভুয়া জন্মদিন পালন ইতিহাসে নিকৃষ্টতম নজির: কাদের

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ১৫ আগস্টে খালেদা জিয়ার ভুয়া জন্মদিন পালন এদেশের ইতিহাসে নিকৃষ্টতম নজির।

আজ রোববার (২২ আগস্ট) দুপুরে চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলায় নিহতদের স্মরণে আয়োজিত আলোচনা সভায় ওবায়দুল কাদের তার বাসভবন থেকে ভার্চ্যুয়ালি যুক্ত হয়ে এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, হত্যার রাজনীতির উত্তরাধিকার বহন করছে বিএনপি ৷ বিএনপিই এদেশে হত্যা, সন্ত্রাসের জনক। বাংলাদেশে সাম্প্রদায়িক শক্তির নির্ভরযোগ্য আস্থার ঠিকানা হচ্ছে বিএনপি।

১৫ আগস্ট হত্যাকান্ডে জিয়াউর রহমানের সংশ্লিষ্টতা নেই, বিএনপি মহাসচিবের এমন বক্তব্যের জবাবে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, বঙ্গবন্ধুর খুনিদের পুরস্কৃত করা, নিরাপদে বিদেশে পাঠিয়ে দিয়ে বিভিন্ন দূতাবাসে চাকরি দেওয়াই প্রমাণ করে জিয়াউর রহমান জড়িত, এর চেয়ে বড় প্রমাণ আর কি হতে পারে?

ওবায়দুল কাদের বলেন, ১৯৭৫ সালের বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের মাস্টারমাইন্ড ছিলেন জিয়াউর রহমান আর হাওয়া ভবনের যুবরাজ তারেক রহমান ছিলেন ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার মাস্টারমাইন্ড।

চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোসলেম উদ্দিন আহমেদের সভাপতিত্বে চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবে আয়োজিত স্মরণ সভায় আরও বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন ও চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমানসহ অন্যান্য নেতারা।

এর আগে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরে সাসেক সড়ক সংযোগ প্রকল্প-২ এর আওতায় দুটি প্যাকেজের চুক্তি সই অনুষ্ঠানে ভার্চ্যুয়ালি যুক্ত হন।

এ সময় ওবায়দুল কাদের তার বক্তব্যে বলেন, গাজীপুর-এলেঙ্গা ও খুলনা-যশোর সড়কে যেকোনো মূল্যে ভোগান্তি দূর করতে হবে। তিনি গাজীপুর-এলেঙ্গা সড়ক নির্মাণ কেন বিলম্বিত হচ্ছে তা সংশ্লিষ্টদের কাছে জানতে চান।

বিআরটি প্রকল্প যেটা আছে সেটা আগে দ্রুত শেষ করার নির্দেশ দিয়ে সড়ক পরিবহন মন্ত্রী বলেন, নতুন কোনো প্রকল্প নেওয়ার প্রয়োজন নেই, আগে চলমান কাজগুলো শেষ করতে হবে।

চুক্তি সই অনুষ্ঠানে সড়ক ও মহাসড়ক বিভাগের সচিব মো. নজরুল ইসলাম, সেতু বিভাগের সচিব আবু বকর ছিদ্দিক ও প্রকল্প পরিচালক ড. মো. ওয়ালিউর রহমান উপস্থিত ছিলেন।

প্রকল্পটি চুক্তি সই করেন ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান আবদুল মোমেন লিমিটেড ও চায়না রেলওয়ে ব্রীজ কনস্ট্রাকশন গ্রুপ। সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের পক্ষে প্রধান প্রকৌশলী মো. আবদুস সবুর।

You might also like