১৮ বছরের কম বয়সীদের টিকা দিতে ডব্লিউএইচও’র অনুমতির অপেক্ষা : স্বাস্থ্যমন্ত্রী

১৮ বছরের কম অর্থাৎ ১২ থেকে ১৭ বছর বয়সীদের করোনাভাইরাসের টিকা দেয়ার জন্য বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডাব্লিউএইচও) অপেক্ষা করছেন বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

সোমবার (০৬ সেপ্টেম্বর) সচিবালয়ে মন্ত্রিসভার বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, ডাব্লিউএইচও’র অনুমতি পেলে এ টিকা প্রদান কার্যক্রম শুরু করা হবে।

তিনি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা, টিকা যাদের দেওয়া সম্ভব সবাইকে দিতে হবে। ১২ থেকে ১৭ বছরের যারা আছেন, তাদেরও দেওয়া হবে। কিন্তু শর্ত আছে। ডব্লিউএইচও’র অনুমোদন আমাদের পেতে হবে। আমাদের টেকনিক্যাল কমিটির অনুমোদনও পেতে হবে। যার অপেক্ষায় আছি।’

১২ থেকে ১৭ বছর বয়সীদের সংখ্যা অনেক বেশি উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, ‘আমাদের সে সংখ্যার টিকাও হাতে থাকতে হবে। কাজে সে টিকার ব্যবস্থা আমরা করছি এবং ডব্লিউএইচও’র অনুমোদন সাপেক্ষে আমরা এ টিকাগুলো দিতে পারবো।’

ইতোমধ্যে কয়েকটি দেশে ১২ বছরের এবং তার ঊর্ধ্বে টিকা দেওয়া হচ্ছে বলেও জানান তিনি। মন্ত্রী বলেন, ‘২২টি দেশে অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। কিন্তু ডব্লিউএইচও এখনো ফরমালি অনুমোদন দেয়নি। এটা যে-যে দেশে দিচ্ছে তারা নিজেদের দিচ্ছে, নিজেদের মতো করে এবং নিজেদের আইন অনুযায়ী।’

‘আমরা ডব্লিউএইচও’র কাছে অলরেডি আবেদন করেছি, বলেছি তারা এ বিষয়ে একটি সিদ্ধান্ত আমাদের দেওয়ার জন্য। আমরা সিদ্ধান্ত পেলে তখন কার্যক্রম করতে পারবো, সে অপেক্ষায় এখন আমরা আছি।’

You might also like