২০১৯ সালের সেরা স্মার্ট ফোন

আনতারা রাইসা: স্মার্টফোন আমাদের জীবনের একটি অপরিহার্য বস্তু হয়ে দাঁড়িয়েছে। ঘুম থেকেই উঠেই আমরা প্রিয় মানুষের মুখ না দেখতে পেলেও আমাদের স্মার্ট ফোন না দেখলে যেন দিনই শুরু হয়না। আমাদের এই প্রযুক্তির যুগে তাই আমরা সবসময় হাতের কাছে সর্বশেষ ফিচারের ফোনটি চাই। গতবছর স্মার্টফোনের রাজ্যে বেজেললেস ডিসপ্লে কিংবা নচ এর মত নতুন কিছু ডিজাইন ট্রেন্ড এসেছিল। সেই সাথে ডুয়াল/ট্রিপল ক্যামেরায় বোকেহ ইফেক্ট অথবা ব্যাকগ্রাউন্ড ব্লার করার ফিচারটিও খুব হাইপ তৈরি করেছিল। ২০১৯ সালে এসে এই ফিচারগুলোরই একটু উন্নত রূপ দেখা যাচ্ছে ফোনগুলোতে।২০১৯ সালের নতুন স্মার্টফোনগুলো হতে যাচ্ছে আরো স্লিক এবং স্মার্ট, ২০১৮ সালের মডেলগুলোয় থাকা বিরক্তিকর অমসৃণ কিনারা গুলো ফেলে মসৃণ করা হয়েছে, এছাড়াও যোগ হয়েছে নানা রকম অপশন ও ফিচার। আগের মডেলের সাথে কেবল সামান্য কিছু বাড়তি ফিচার যোগ না করে বেশ কিছু ব্র‍্যান্ডের ফোন আসছে সম্পূর্ণ নতুন ডিজাইন ও ফাংশন নিয়ে। বছর তো শেষ হতে চলল। চলুন জেনে নেই এই বছরের সেরা ৫ স্মার্ট ফোন সম্পর্কে-

১। আইফোন ১১

আইফোন ১১। ছবি: সংগৃহীত

বছরের শুরুর দিকেই আইফোন এর নতুন মডেল আসা নিয়ে গুঞ্জন চলছিল। তবে অ্যাপল ব্যতিক্রমী কিছু দেখাতে না পারায় হতাশ হতে হয়েছে আইফোন প্রেমিদের। ১০ সেপ্টেম্বর  আইফোন ১১, ১১ প্রো ও ১১ প্রো ম্যাক্স উন্মোচন করেছে অ্যাপল।অ্যাপল এবার আইফোনের ক্যামেরাকে বেশি প্রাধান্য দিয়েছে। এ ছাড়া এ১৩ বায়োনিক চিপসেট এবং উন্নত গ্রাফিকসের কথা বলেছে। তবে গ্রাহকের কথা মাথায় রেখে নতুন আইফোনের ক্ষেত্রে দাম বাড়ায়নি তারা। আগের তুলনায় নতুন আইফোনে প্রসেসিং ক্ষমতা ও ব্যাটারির আয়ু কিছুটা বেড়েছে, কিন্তু এগুলো খুব বেশি প্রাধান্য পাওয়ার মতো কিছু নয়। মূলত অ্যাপলের কর্মকর্তারা নতুন ক্যামেরারই বেশি প্রশংসা করেছেন। আইফোন ১১-তে ওয়াইড অ্যাঙ্গেল লেন্স ও আল্ট্রাওয়াইড অ্যাঙ্গেল লেন্স–সংবলিত ডুয়েল রিয়ার ক্যামেরার সংযুক্তি রয়েছে। পেছনের এই দুটি ক্যামেরাই ১২ মেগাপিক্সেলের। অল্প আলোয় ছবি তোলার ক্ষেত্রে বিশেষ সুবিধা পাওয়া যাবে আইফোন ১১-তে। কারণ, রাতের বেলা কিংবা কম আলোয় ছবি তোলার সময় এর নাইট মোড স্বয়ংক্রিয়ভাবে চালু হবে।কুইকটেক নামে আইফোন ১১-তে নতুন একটি ফিচার যুক্ত করা হয়েছে। এই ফিচারের মাধ্যমে ছবি তোলার মাঝখানে কোনো বিরতি ছাড়াই ভিডিও শুরু করা সম্ভব হবে। ভালো সেলফি তোলার জন্য আইফোন ১১-তে রয়েছে ১২ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা। ফ্রন্ট ক্যামেরা ব্যবহার করে ৪-কে ৬০ এফপিএস ভিডিও ছাড়াও স্লো মোশন ভিডিও করা যাবে। পেছনের তিনটি ক্যামেরার প্রতিটিই ১২ মেগাপিক্সেলের। এর একটি ওয়াইড অ্যাঙ্গেল ল্যান্স, আরেকটি আল্ট্রা ওয়াইড অ্যাঙ্গেল অন্যটি টেলিফোটো ক্যামেরা। প্রো সিরিজের এই আইফোনের সঙ্গে ১৮ ওয়াটের দ্রুত গতির একটি চার্জার দেওয়া হবে।

২। হুয়াওয়ে পি৩০ ও পি৩০ প্রো

হুয়াওয়ে পি৩০ ও পি৩০ প্রো। ছবি: সংগৃহীত

‘পি ফর ফটোগ্রাফি’ এমন স্লোগানকে সামনে রেখে স্মার্টফোন ফটোগ্রাফি নিয়ে গ্রাহকদের চমকে দিয়েছে পি৩০ সিরিজ। মোবাইল ফটোগ্রাফির ক্ষেত্রে র‌্যাংকিং প্রকাশ করা ডিএক্সওমার্ক এর র‌্যাংকিংয়ে ইতিমধ্যে পি৩০ প্রো সবার শীর্ষে জায়গা করে নিয়েছে।পি৩০ প্রো ফোনটির পিছন দিকেই থাকছে চার চারটি ক্যামেরা সেন্সর।দুর্দান্ত ছবি ও ভিডিওগ্রাফির জন্য রয়েছে অবিশ্বাস্য জুমিং সুবিধা। নতুন পেরিস্কোপ ডিজাইন এবং সুপারজুম লেন্স এর সাহায্যে ৫ গুণ অপটিক্যাল জুম, ১০ গুণ হাইব্রিড জুম, ৫০ গুণ ডিজিটাল জুম পওয়া যাবে। অল্প আলোতেও ছবি ও ভিডিও ধারণ করার সুবিধা তো রয়েছেই। আইপি ৬৮ রেটেড ফোনটিতে ব্লুটুথ ৫.০, ফোরজি, ওয়ারলেস চার্জিং, রিভার্স ওয়ারলেস চার্জিং, এনএফসি ইত্যাদি প্রযুক্তি থাকছে। টাইপ সি পোর্ট থাকলেও থাকছে না কোন ৩.৫ মিমি পোর্ট। ফোনটিকে পাওয়ার দিচ্ছে ৪২০০ মিলিএম্পিয়ার এর একটি ব্যাটারি যা ৪০ ওয়াট সুপারচার্জ প্রযুক্তি সমর্থন করে।

বাংলাদেশের বাজারে পি৩০ প্রো স্মার্টফোনটির দাম পড়বে ৮৯ হাজার ৯৯৯ টাকা। এছাড়া পি৩০ ও পি৩০ লাইট স্মার্টফোন দু’টির দাম পড়বে যথাক্রমে ৬৪ হাজার ৯৯৯ ও ২৯ হাজার ৯৯৯ টাকা।

৩। স্যামসাং গ্যালাক্সি এস১০ ও এস১০+

স্যামসাং গ্যালাক্সি এস১০ ও এস১০+। ছবি: সংগৃহীত

স্মার্টফোন দুনিয়া মেতে আছে নচ ডিসপ্লে নিয়ে। তবে স্যামসাং মেতেছিল ইনফিনিটি ডিসপ্লে নিয়ে।এবার তাই ইনফিনিটি ডিসপ্লের উন্নত সংস্করণের দেখা মিলতে পারে গ‍্যালাক্সি এস১০ ফোনে।সম্পূর্ণ বেজেলহীন ডিসপ্লের উপরের বাম পাশে থাকবে ফ্রন্ট ক‍্যামেরা।ক‍্যামেরা হিসেবে ডিভাইসটির পেছনে থাকবে তিনটি ক‍্যামেরা।গ‍্যালাক্সি এস১০ এ থাকবে ১২ মেগাপিক্সেলের ওয়াইড অ‍্যাঙ্গেল ক‍্যামেরা। বাকি দুইটি হল ১৩ মেগাপিক্সেলের টেলিফটো লেন্স এবং ১৬ মেগাপিক্সেলের সুপার ওয়াইড অ‍্যাঙ্গেল লেন্স। ডিভাইসটিতে সবচেয়ে শক্তিশালী প্রসেসর ব‍্যবহার করবে স্যামসাং।

 দেশের বাজারে গ্যালাক্সি এস১০ই, গ্যালাক্সি এস১০ ও গ্যালাক্সি এস১০+ এর দাম যথাক্রমে ৭৪,৯০০ টাকা, ৮৯,৯০০ টাকা ও ৯৯,৯০০ টাকা নির্ধারণ করেছে স্যামসাং বাংলাদেশ।

৪। নোকিয়া ৯ পিওরভিউ

নোকিয়া ৯ পিওরভিউ। ছবি: সংগৃহীত

মার্কেটে প্রতিযোগিতার দিক দিয়ে বেশ কয়েক বছর ধরেই নোকিয়া তেমন একটা বেশি ভালো পারফর্ম করতে পারছেনা। কিন্তু এই নতুন ডিভাইসটি সাথে নিয়ে এই বছর নোকিয়া নিশ্চিত ভাবে একটি ভালো অবস্থান নিয়েছে। নোকিয়া ৯ পিওরভিউ অবিশ্বাস্য ভাবে ৫ টি রিয়ার ক্যামেরা ফিচার করতে যাচ্ছে একটি চোখে পড়ার মত ফটোপ্রাফিক স্মার্টফোন তৈরি করার জন্য। তাদের আধুনিক ফ্ল্যাগশিপ ডিভাইসটির জন্য লাইটিং এর উদ্দেশ্যে বিভিন্ন প্রযুক্তি ব্যবহার করা এই ফোনের স্পেসিফিকেশনগুলো বিশেষ ভাবে এর ফটো তোলার ক্ষমতার উপর নির্ভরশীল।

৫। গুগল পিক্সেল ৩ ও পিক্সেল ৩ এক্সএল

গুগল পিক্সেল ৩ ও পিক্সেল ৩ এক্সএল। ছবি: সংগৃহীত

গুগল পিক্সেল ৩ স্মার্টফোনে থাকছে ৫.৫ ইঞ্চি ওএলইডি স্ক্রিন (৪৪৩ পিপিআই, ১৮:৯) ও নচ। পিক্সেল ৩ এক্সএলে পাবেন নচ সহ ওএলইডি ৬.৩ ইঞ্চি স্ক্রিন (৫২৩ পিপিআই, ১৮.৫:৯)। উভয় ফোনেই গত বছরের মডেলের চেয়ে বড় স্ক্রিন দিয়েছে গুগল। এগুলো কর্নিং গরিলা গ্লাস ৫ দ্বারা সুরক্ষিত থাকবে। আরও পাচ্ছেন এইচডিআর সাপোর্ট।গুগল তাদের পিক্সেল ফোনের মূল ক্যামেরায় ১২.২ মেগাপিক্সেল ‘ডুয়ালপিক্সেল’ সিঙ্গেল লেন্স রেখেছে। ফ্রন্ট ক্যামেরার ক্ষেত্রে পিক্সেল ৩ এবং পিক্সেল ৩ এক্সএল উভয়ই দুটি করে লেন্স নিয়ে আসছে।গুগল পিক্সেল ৩ এবং পিক্সেল ৩ এক্সএল চলবে এন্ড্রয়েড ৯ পাই অপারেটিং সিস্টেমে। ডিভাইসগুলোতে থাকছেনা কোনো ক্যাপাসিটিভ ডেডিকেটেড নেভিগেশন বাটন। বরং এতে আসছে জেশ্চার কন্ট্রোল।

অনলাইন ডেস্ক/বিজয় টিভি