৭ মাস পর রঙ ফিরেছে রূপালী পর্দায়

করোনা প্রভাবে ৭ মাস বন্ধ থাকার পর আজ থেকে খুলে দেয়া হলো দেশের সব সিনেমা হল। ফলে রঙ ফিরেছে রূপালী পর্দায়। ফটকের ঝুলানো তালায় সুনসান হলে আবার জমবে সিনেমাপ্রেমীদের আড্ডা।

এদিকে এ সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানালেও, নতুন সিনেমা মুক্তি নিয়ে সংশয়ে চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্টরা। এছাড়া অর্ধেক আসন খালি রেখে খরচ মেটানো সম্ভব নয় বলে জানিয়েছেন হল মালিকরা।

জাজ মাল্টিমিডিয়ার সিইও আলিমুল্লাহ খোকন বলেন, ‘কেউ আর নতুন ছবি রিলিজ দিতে চাচ্ছে না। মানুষ চাচ্ছে হলমুখী হতে, এটা কাটিয়ে উঠতে অন্তত দুই থেকে তিন সপ্তাহ সময় লাগবে। যার ফলে পুরান ছবি দিয়েই হল শুরু করতে হবে।’

হল খুলে দেয়ার সিদ্ধান্তকে সাধুবাদ জানালেও স্বাস্থ্যবিধি মেনে দর্শকের হলে আসা নিয়ে সংশয়ে নির্মাতারা।

পরিচালক, প্রযোজক ও অভিনেতা কাজী হায়াৎ বলেন, ‘সিনেমা হলের স্বাস্থ্যবিধি মেনে সিনেমা হল খোলা হবে কিনা আমার যথেষ্ট সন্দেহ আছে সব কিছুতেই।’

নতুন সিনেমা মুক্তি না দিয়ে হলের আসন সংখ্যার অর্ধেক খালি রেখে ব্যয় মেটানো সম্ভব নয় বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছেন হল মালিকরা।

মধুমিতা সিনেমা হলের কর্ণধার নওশাদ আহমেদ বলেন, ‘ব্লক বাস্টার ছবি যদি না আসে তাহলে আমরা হল খুলবো না।’

এদিকে প্রজ্ঞাপন জারির পরপরই প্রযোজক সমিতিতে চারটি নতুন সিনেমা মুক্তির জন্য আবেদন করেছেন প্রযোজকরা।

নিউজ ডেস্ক/বিজয় টিভি