অবিশ্বাস্য ম্যাচে ইংল্যান্ডকে হারালো পাকিস্তান

গত রবিবার করাচিতে আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে প্রথম দল হিসেবে ২০০তম ম্যাচ খেলতে নেমেছিল পাকিস্তান। মাইলফলক ছোঁয়ার এ ম্যাচে অবিশ্বাস্য এক জয় পেয়েছে বাবর আজমরা। পাবেই বা না কেন! কারন, দলটা যে পাকিস্তান। হারা ম্যাচ জেতা, এটা পাকিস্তানের কাছে নতুন কিছু নয়।

১৬৭ রানের লক্ষ্যে নেমে শেষ ৩ ওভারে ইংল্যান্ডের প্রয়োজন ছিল ৩৩ রান। অন্যদিকে পাকিস্তানের দরকার ছিল ৩ উইকেট। ম্যাচের এমন সমীকরণে পাকিস্তান অধিনায়ক বাবর আজম বল তুলে দেন মোহাম্মদ হাসনাইনের হাতে। কিন্তু হাসনাইনের করা প্রথম ৪ বলেই ম্যাচ থেকে প্রায় ছিটকে যায় পাকিস্তান। ১ ছক্কা ও ৩ চারে, প্রথম ৪ বলেই ১৮ রান তুলে নেন ইংলিশ ব্যাটসম্যান লিয়াম ডসন।

কিন্তু তখনই ইংলিশদের বিজয় উল্লাস করতে যেন মানা করছিলেন রিজওয়নরা। কারন, আনপ্রেডিক্টেবল তকমাটা যে তাদের গায়ে! হলোও ঠিক তাই, শেষ ২ ওভারে অবিশ্বাস্যভাবে ম্যাচে ফিরে এলো পাকিস্তান।

১৯তম ওভারে পাকিস্তানের হারিস রউফ মাত্র ৫ রান দিয়ে সাজ ঘরে ফেরান ছন্দে থাকা ডসনকে। এরপর শেষ ওভারে ইংল্যান্ডের প্রয়োজন ছিল মাত্র ৪ রান। তবে মোহাম্মদ ওয়াসিমের করা শেষ ওভারে রিস টপলি রান আউট হলে ৩ রানের অবিশ্বাস্য জয় পায় পাকিস্তান। ফলে ইংল্যান্ডকে ৩ রানে হারিয়ে ৭ ম্যাচের সিরিজে ২-২ সমতা ফেরাল বাবর আজমের দল।

পাকিস্তানের এই ম্যাচ দেখে অনেকেরই হয়তো এশিয়া কাপে আফগানিস্তানের বিপক্ষে খেলা ম্যাচটির কথা মনে পড়ে গেছে। যেখানে, শেষ ওভারে পর পর দুই ছয় মেরে দলকে জিতিয়েছিলেন নাসিম শাহ। কি দর্শক, সত্যি তো?