অবৈধ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করায় বিদ্যুৎ কর্মীকে পিটিয়ে খুন, গ্রেফতার ৫

বগুড়ায় পল্লী বিদ্যুতের অবৈধ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করতে গিয়ে স্থানীয়দের মারপিটে আব্দুল হান্নান (৪২) নামে এক বিদ্যুৎ কর্মী নিহত হয়েছেন। এ সময় সহকারী মহাব্যবস্থাপকসহ আরও পাঁচজন আহত হয়েছেন। ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে অবৈধ সংযোগ গ্রহণকারী আবু সাঈসহ পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

শুক্রবার (১১ জুন) দিবাগত রাত ২টার দিকে শিবগঞ্জ উপজেলার আটমূল ইউনিয়নের ভাইয়েরপুকুর বন্দরে এ ঘটনা ঘটে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান শিবগঞ্জ থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দীপক কুমার দাস।

নিহত আব্দুল হান্নান বগুড়ার শাজাহানপুরে খোট্টাপাড়া ইউনিয়নের জালশুকা গ্রামের মোজাম্মেল হকের ছেলে। তিনি পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির পীরব সাব-জোনাল অফিসের অফিস সহকারী হিসেবে কর্মরত ছিলেন।

এ ঘটনায় আহত ব্যক্তিরা হলেন পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির ওই কার্যালয়ের সহকারী মহাব্যবস্থাপক (এজিএম) রাকিবুজ্জামান এবং লাইনম্যান পিন্টু প্রামাণিক, বিকাশ চন্দ্র, ফাকরু হোসাইন ও আজিজুল হক।

পল্লী বিদ্যুতের কর্মকর্তা আব্দুর রহিম জানান, আবু সাঈদ তার বাড়ির মিটার থেকে অবৈধ সংযোগ নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে ডিস ব্যবসা করে আসছিলেন। এ খবর পেয়ে পিরব পল্লী বিদ্যুৎ অফিসের প্রধান রাকিবুজ্জামান লোকজন নিয়ে সংযোগ বিচ্ছিন্ন করতে যান।

এ সময় তাদের লাইন কেটে মিটার নিয়ে আসার সময় আবু সাঈদ ও তার ছেলে সোহেল রানা সবুজের নেতৃত্ব ৪০ থেকে ৫০ জন তাদের ঘিরে ফেলে। তারা লাঠিসোঁটা দিয়ে মারপিট করার এক পর্যায়ে পল্লী বিদুতের অফিস সহকারী আব্দুল হান্নান আহত হন। অন্যদের ইউনিয়ন পরিষদে আটকে রাখা হয়।

খবর পেয়ে শিবগঞ্জ থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তাদের সেখান থেকে উদ্ধার করে শিবগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক হান্নানকে মৃত ঘোষণা করেন। ঘটনাস্থল থেকে আবু সাঈদ ও তার ছেলে সবুজসহ পাঁচজনকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে।

শিবগঞ্জ থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি দীপক কুমার দাস জানান, ঘটনাস্থলে রাতেই পুলিশ অভিযান চালিয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পাঁচজনকে আটক করা হয়েছে। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

You might also like