আইপিএলে দল পেলেন না মুশফিক ও মুস্তাফিজ

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল) টি-২০ ক্রিকেট ২০২০ আসরের নিলামে প্রথম দফায় বাংলাদেশের সাবেক অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম ও মুস্তাফিজুর রহমানকে দলে নেয়নি কোন ফ্র্যাঞ্চাইজি। তবে এখানেই শেষ হয়ে যায়নি মুশফিক-মুস্তাফিজের আইপিএলে খেলা পথ।

কারন আইপিএল নিলামের নিয়ম অনুযায়ী, প্রথম দফায় অবিক্রিত হলেও চূড়ান্ত পর্বে আবারও নিলামে উঠবেন অবিক্রিতরা। সেক্ষেত্রে নিলামকারী দলগুলোর অবিক্রিত খেলোয়াড়দের প্রতি আগ্রহ থাকতে হবে। তাই দ্বিতীয় দফায় ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলো নিজেদের পছন্দের খেলোয়াড়কে দলে ভেড়াতে পারে।

তবে এক্ষেত্রে বর্তমান ভিত্তিমূল্য অর্ধেকে নেমে আসবে। অর্থাৎ নিলামের প্রথম দফায় মুশফিকের ভিত্তিমূল্য ছিলো ৭৫ লাখ রুপি। সেটি হবে অর্ধেক। ঠিক তেমনি মুস্তাফিজের ভিত্তিমূল্য ধরা হয়েছিলো ১ কোটি রুপি। সেটি হবে অর্ধেকে।

গতকাল কলকাতায় হয়ে যাওয়া নিলামে বাংলাদেশের পাঁচ খেলোয়াড়ের নাম ছিলো। কিন্তু মুশফিক-মুস্তাফিজকেই শুধুমাত্র নিলামে ডাকা হয়। অন্য তিনজন মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ, সাব্বির রহমান এবং মোহাম্মদ সাইফউদ্দিনকে নিলামে ডাকেইনি আইপিএল কর্তৃপক্ষ।

এবারের নিলামে সবচেয়ে বেশি পারিশ্রমিকে দল পেয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার পেসার প্যাট কামিন্স। ১৫ কোটি ৫০ লাখ রুপিতে কামিন্সকে দলে নিয়েছেন কলকাতা নাইট রাইডার্স। আরেক অস্ট্রেলিয়ান গ্লেন ম্যাক্সওয়েলকে দলে নিতে ১০ কোটি ৭৫ লাখ রুপি খরচ করছে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব।

এছাড়া দক্ষিণ আফ্রিকার পেস অলরাউন্ডার ক্রিস মরিসকে ১০ কোটি রুপিতে দলে নিয়েছে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু।

চমক দেখিয়েছেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের পেসার শেলডন কটরেলও। ৮ কোটি ৫০ লাখ রুপিতে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবে গেলেন কটরেল। ওয়েস্ট উইন্ডিজের বিধ্বংসী ব্যাটসম্যান শিমরন হেটমায়ারকে ৭ কোটি ৭৫ লাখ রুপিতে কিনে নেয় দিল্লি ক্যাপিটালস।

নিলামের প্রথম দফায় সর্বমোট ৩৩৮ জন খেলোয়াড়ের নাম ছিলো।

অনলাইন নিউজ ডেস্ক/বিজয় টিভি

You might also like