আরোগ্যের চেয়ে প্রতিরোধই শ্রেয় : পলক

১৮

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক আরোগ্যের চেয়ে প্রতিরোধই শ্রেয় উল্লেখ করে মানবতার শত্রু করোনা ভাইরাস থেকে সুরক্ষা পেতে ব্যক্তিগত সচেতনতার ওপর গুরুত্বারোপ করেন। তিনি বলেন, বৈশ্বিক মহামারি পরিস্থিতিতে জরুরি প্রয়োজনে বাইরে গেলে নিয়মিত মাস্ক পরিধান করা, সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা , বাইরে থেকে এসে ২০ সেকেন্ড সাবান পানি দিয়ে হাত দেয়া ও ভ্যাকসিন গ্রহণের কোনো বিকল্প নেই।

আজ মঙ্গলবার তাঁর নির্বাচনি এলাকা নাটোরের সিংড়া উপজেলা স্বাস্থ্য “কমপ্লেক্সের জিন এক্সপার্ট মেশিনের” মাধ্যমে কোভিড-১৯ এর নমুনা পরীক্ষা কার্যক্রম উদ্বোধন অনুষ্ঠানে অনলাইনে যুক্ত হয়ে প্রধান অতিথির প্রতিমন্ত্রী বক্তৃতায় এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, সচেতন ভাবে চলাফেরার মাধ্যমে করোনায় আক্রান্তের হাত থেকে নিজেকে এবং ব্যক্তি, সমাজ ও পরিবারকে রক্ষা একই সাথে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব।

প্রতিমন্ত্রী সিংড়া ৫০ শয্যা বিশিষ্ট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সকে ১০০ শয্যার হাসপাতালে উন্নীত করা হবে উল্লেখ করে বলেন, সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সটি আধুনিক, আদর্শ, সেবাধর্মী ও কল্যাণমুখী প্রতিষ্ঠানে পরিণত হয়েছে। তিনি বলেন, স্বাস্থ্য সেবা প্রদানে সংশ্লিষ্ট সকল আন্তরিকতার সাথে কাজ করতে হবে। হাসপাতালের সমস্যাসমূহ চিহ্নিত করে সমাধান করা হবে বলেও তিনি জানান।

সিংড়া উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাক্তার আমিনুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনলাইন প্ল্যাটফর্মে যুক্ত হয়ে বক্তৃতা করেন নাটোর জেলা প্রশাসক শাহ মো: রিয়াজ, নাটোর জেলা সিভিল সার্জন ডা. কাজী মিজানুর রহমান ও নাটোর জেলা পুলিশ সুপার লিটন কুমার সাহা।

পরে প্রতিমন্ত্রী সিংড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জিন এক্সপার্ট মেশিনের মাধ্যমে কোভিড-১৯ এর নমুনা পরীক্ষা কার্যক্রম আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করেন।

উল্লেখ্য,তাৎক্ষণিকভাবে হাসপাতালে আগত ১২ জনকে জিন এক্সপার্ট মেশিনে সেবা প্রদান করা হয়।

You might also like