আলু তোলা নিয়ে দুই পক্ষের কোন্দল, হামলায় নিহত এক

মুন্সিগঞ্জ সদর উপজেলার আলু তোলাকে কেন্দ্র করে  দুই গ্রুপের দফায় দফায় ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। এর জেরে প্রতিপক্ষের হামলায় মো. জুয়েল ফকির (৪৫) নামে এক ব্যক্তি নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

বৃহস্পতিবার (৩১ মার্চ) ভোরে ফকিরকান্দি গ্রামে এ হামলার ঘটনা ঘটে। নিহত জুয়েল ওই গ্রামের বাসিন্দা।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, জমি থেকে আলু উত্তোলনকে কেন্দ্র করে চরকেওয়ার ৮নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি হারুন ফকির ও সাধারণ সম্পাদক মন্টু দেওয়ান গ্রুপের কোন্দল চলে আসছিল। কোন্দলকে কেন্দ্র করে বুধবার দিনগত রাত থেকে স্থানীয় চরমশুরা-ফকিরকান্দি গ্রামে দুইগ্রুপের মধ্যে উত্তেজনা ও কয়েক দফা ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। ভোর ৫টার দিকে মন্টু দেওয়ানের পক্ষের লোকজন হামলা চালিয়ে হারুনের চাচাতো ভাই জুয়েল ফকিরের বাড়িতে। এ সময় মারধর ও গুলিতে তিনি মারা যান।

ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি হারুন ফকির বলেন, ‘আমাদের লোকজনকে আলু উত্তোলনে বাধা দিয়ে আসছিল প্রতিপক্ষের লোকজন। রাতে কয়েকদফা ককটেল হামলা হয়। আমরা বাড়ি থেকে চলে যাই। ভোরে আমরা চাচাতো ভাই জুয়েল নামাজের জন্য বের হলে তাকে হত্যা করা হয়।

এ বিষয়ে জানতে মন্টু দেওয়ান পক্ষের কারো বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

মুন্সিগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ ও প্রশাসন) সুমন দেব বলেন, নিহত ব্যক্তি কীভাবে মারা গেলো তার সঠিক কারণ জানতে তদন্ত করা হচ্ছে। তার মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য মুন্সিগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

You might also like
%d bloggers like this: