আল-আকসায় ফিলিস্তিনের আনন্দ উদযাপনে ইসরায়েলি হামলা

৩৫

গাজায় অস্ত্রবিরতি হলেও আল-আকসা মসজিদে হামলা চালিয়েছে ইসরায়েলি বাহিনী। শুক্রবার (২১ মে) জুমার নামাজের পর এ হামলা চালানো হয়েছে। এর আগে বৃহস্পতিবার (২০ মে) ইসরায়েল ও ফিলিস্তিন যুদ্ধবিরতির প্রস্তবে সম্মতি জানিয়ে যুদ্ধবিরতির চুক্তিতে স্বাক্ষার করে। শুক্রবার (২১ মে) ভোর থেকে এ যুদ্ধবিরতি কার্যকর হয়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা বলছেন, নামাজের পর হামাস ও ইসরায়েলের মধ্যকার যুদ্ধবিরতি উদযাপনে আল-আকসা প্রাঙ্গণে অবস্থান করছিলেন ফিলিস্তিনিরা। তারা গান গেয়ে স্লোগান দিয়ে আনন্দে মেতে ছিলেন।

জেরুজালেম থেকে আলজাজিরার সাংবাদিক ইমরান খান বলেন, ফিলিস্তিনিরা যখন উদযাপনের আনন্দে ডুবে ছিলেন, তখন ইসরায়েলি পুলিশ এসে স্টান গ্রেনেড, স্মোক বোমা ও কাঁদানে গ্যাস নিক্ষেপ করতে থাকে।

এদিকে যুদ্ধবিরতি হলেও ফিলিস্তিনিদের বসতি ও আল-আকসা রক্ষায় লড়াইয়ে প্রস্তুতির কথা জানিয়েছে প্রতিরোধ আন্দোলন হামাস।

আল জাজিরা প্রকাশিত প্রতিবেদনে দেখা গেছে, যুদ্ধবিরতির পরও ইসরায়েল অধিষ্ঠিত পূর্ব জেরুজালেমে উত্তেজনা দেখা দিয়েছে। সেখানে ইসরায়েলি পুলিশ আল-আকসা মসজিদ প্রাঙ্গণে হামলা চালিয়েছে। শুক্রবার জুমার নামাজের পর ফিলিস্তিনিদের ওপর ইসরায়েলি পুলিশ টিয়ার গ্যাস নিক্ষেপ করে। এ সময় পুলিশকে লক্ষ্য করে বিক্ষোভকারীরাও পাথর ছুঁড়ে মারেন।