আস্থা ভোটে টিকে গেছে যুক্তরাজ্যের সরকার

১০০

আস্থা ভোটে টিকে গেছে যুক্তরাজ্যের সরকার। আস্থা ভোটে টিকে যাওয়ায় সরকারে বহাল থাকছেন থেরেসা মে। থেরেসা মে’র সরকারের বিরুদ্ধে আনা অনাস্থা প্রস্তাবের ওপর বুধবার (১৬.০১.২০১৯) সন্ধ্যায় যুক্তরাজ্যের পার্লামেন্টে ভোটাভুটি অনুষ্ঠিত হয়। এতে ৩২৫ জন আইনপ্রণেতা থেরেসা মে’র সরকারের পক্ষে ভোট দেন। আর বিপক্ষে ভোট দিয়েছেন ৩০৬ জন।

এর আগে গত মঙ্গলবার প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে সম্পাদিত ব্রেক্সিট চুক্তি প্রত্যাখ্যান করেন দেশটির আইনপ্রণেতারা। এতে বড় ধরনের ধাক্কা খায় থেরেসা মে’র সরকার। ব্রেক্সিট চুক্তি পাশে ব্যর্থ হওয়ার সুযোগ নিয়ে প্রধান বিরোধী দল লেবার পার্টির নেতা জেরেমি করবিন তাৎক্ষণিকভাবে থেরেসা মে’র সরকারের বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব উত্থাপন করেন। সংসদের অন্যান্য বিরোধী দল লিবারেল ডেমোক্র্যাটস, স্কটিশ ন্যাশনালিস্ট পার্টি, প্লাইড কামরি ও গ্রিন পার্টি এই অনাস্থা প্রস্তাবে সমর্থন করে।

ক্ষমতাসীন কনজারভেটিভ দলের ১১৮ জন আইনপ্রণেতা সরকারের ব্রেক্সিট চুক্তির বিপক্ষে অবস্থান নিয়েছিল। ১০টি আসন নিয়ে সরকারের শরিক ডেমোক্রেটিক ইউনিয়ন্স্টি পার্টিও (ডিইউপি) ব্রেক্সিট চুক্তির বিপক্ষে ভোট দেয়। কিন্তু আস্থা ভোটে এরা সকলেই থেরেসা মে’র সরকারের প্রতি সমর্থন দেন। যে কারণে আস্থা ভোটে উতরে গেছে থেরেসা মে’র সরকার।

প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে সম্পাদিত ব্রেক্সিট চুক্তি নিয়ে ক্ষমতাসীন দলের মধ্যে নানা বিরোধ রয়েছে। শরিক দল ডিইউপিও ওই চুক্তির বিরোধী। কিন্তু চুক্তির বিপক্ষে অবস্থান নিলেও সরকারের পক্ষে তাদের আস্থা অবিচল। তারা চান না থেরেসা মে’র সরকারের পতন হোক এবং ক্ষমতাচ্যুত হোক কনজারভেটিভ দল। আর ক্ষমতাসীনরা এককাট্টা থাকলে বিরোধীদের পক্ষে অনাস্থা ভোটে বিজয়ী হওয়া সম্ভব নয় বলে আগেই অনুমেয় ছিল।

নিউজ ডেস্ক / বিজয় টিভি

You might also like