ইউক্রেনের সহায়তার জন্য ৩৩ বিলিয়ন ডলারের প্যাকেজ প্রস্তাব বাইডেনের

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ইউক্রেনে অস্ত্র সরবরাহ ও সমর্থনের জন্য বৃহস্পতিবার ৩৩ বিলিয়ন ডলারের প্যাকেজ প্রস্তাব করে বলেছেন, যুদ্ধ তৃতীয় মাসে গড়ানোর কারণে রাশিয়া পরাজয় স্বীকার করা ছাড়া পশ্চিমাদের কাছে আর কোন বিকল্প নেই।

হোয়াইট হাউসে বক্তৃতায় বাইডেন বলেন, রাশিয়ার আগ্রাসনে ইউক্রেনের ক্ষতিপূরণের জন্য অভূতপূর্ব নিষেধাজ্ঞার অধীনে রাজনীতিতে প্রভাবশালী রাশিয়ার ধনকুবদের কাছ থেকে ছিনিয়ে নেয়া বিলাস বহুল সম্পদ ব্যবহার করার অনুমতি দেওয়ার জন্য প্রস্তাবিত আইনের রূপরেখাও তুলে ধরেন।

বাইডেন স্বীকার করেন, ইউক্রেনকে সমর্থন দিতে যুক্তরাষ্ট্রের বিপুল ব্যয় বহন করতে হচ্ছে, কিন্তু তিনি রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভøাদিমির পুতিনের সাথে লড়াই করার সত্যিকার কোন ইচ্ছে নেই। এই লড়াইয়ের খরচ সস্তা নয়। তবে আগ্রাসনের দিকে ঝুঁকে পড়া আরো ব্যয়বহুল হবে যদি আমরা সেটি ঘটতে দেই।

বৃহৎ সেনাবাহিনী ও ভারী অস্ত্রের হামলায় ক্ষতিগ্রস্ত ইউক্রেনে মার্কিন সহযোগিতার মাত্রা প্রতিফলিত হচ্ছে। বাইডেন নিশ্চিত করেন ইউক্রেনে পাঠানো প্রতিটি রাশিয়ান ট্যাঙ্কের বিপরীতে ইতোমধ্যে ১০ টি করে ট্যাঙ্ক বিধ্বংসী অস্ত্র সরবরাহ করা হয়েছে।

বাইডেন বলেন, আমরা রাশিয়াকে আক্রমন করছি না। আমরা ইউক্রেনকে রাশিয়ার আগ্রাসনের বিরুদ্ধে আতœরক্ষা করতে সহায়তা করছি।

রাশিয়ার পারমাণবিক যুদ্ধের আশঙ্কা প্রসঙ্গে বাইডেন এটিকে মস্কোর ‘হতাশার লক্ষণ’ বলে উল্লেখ করে বলেন, ‘পারমাণবিক অস্ত্রের ব্যবহার বা এটির ব্যবহার করার সম্ভাবনা সম্পর্কে অলস মন্তব্য করা উচিত নয়, এটা কান্ডজ্ঞানহীন কাজ।

You might also like
%d bloggers like this: