ইন্দোনেশিয়ার পশ্চিম পাপুয়ায় সংঘর্ষে ১৮ জনের মৃত্যু

ইন্দোনেশিয়ার পশ্চিম পাপুয়া প্রদেশের সরং শহরে দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষে কমপক্ষে ১৮ জন নিহত হয়েছেন। মঙ্গলবার পুলিশ একথা জানায়। খবর এএফপি’র।

এক বিবৃতিতে সরং পুলিশ প্রধান আরি নিয়োতো সেশিয়াওয়ান বলেন, ‘গত রাত (সোমবার) ১১ টায় এ ভয়াবহ সংঘর্ষ ছড়িয়ে পড়ে। এটি ছিল একটি দীর্ঘস্থায়ী সংঘাত। শনিবার ঘটা এক সংঘর্ষের জের থেকে এটি ঘটে।’

সোরাং পুলিশের প্রধান আরি নিয়োতো সেতিয়াওয়ান এক বিবৃতিতে বলেন, “সোমবার (২৪ জানুয়ারি) রাত ১১টার দিকে শহরের ‘ডবল ও’ নামের একটি পানশালার ভেতরে সংঘর্ষ শুরু হয়। এ সময় ভবনটিতে আগুন ধরে যায়। মারা যাওয়াদের মধ্যে একজনের শরীরে ছুরিকাঘাতের চিহ্ন রয়েছে। বাকি ১৭ জন দগ্ধ হয়ে মারা গেছেন।”

সোরাং পুলিশের স্বাস্থ্য বিভাগের প্রধান এডওয়ার্ড পাঞ্জাইতান বলেন, ‘দুইতলা বিশিষ্ট “ডবল ও’ পানশালাটির দ্বিতীয় তলা থেকে ১৭টি লাশ উদ্ধার করা হয়। লাশগুলো সেলেবে সোলু হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।”

ওয়েস্ট পাপুয়া রাজ্য পুলিশের এক মুখপাত্র মেট্রো টিভিকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে জানান, কি কারণে দুই পক্ষ সংঘর্ষে জড়িয়েছে তা খতিয়ে দেখতে ইতোমধ্যে কাজ শুরু করেছে পুলিশ।

পুলিশ প্রধান সেতিয়াওয়ান বলেন, ‘পানশালাটির প্রথম তলায় আগুন লাগে। পরে তা পুরো ভবনে ছড়িয়ে পড়ে। আমরা যতটা সম্ভব লোকজনকে নিরাপদে সরিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করেছি। আজ (মঙ্গলবার) সকালে দমকল কর্মীরা আগুন নেভানোর পর আমরা সেখানে কিছু মৃতদেহ উদ্ধার করেছি।’

%d bloggers like this: