ইরানে যাত্রীবাহী ট্রেন লাইনচ্যুত, নিহত অন্তত ১৭

ইরানে ভয়াবহ ট্রেন দুর্ঘটনায় কমপক্ষে ১৭ জন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও বহু যাত্রী। দুর্ঘটনাকবলিত এই ট্রেনটি ৩৫০ জন যাত্রী বহন করছিল বলে শোনা যাচ্ছে। পশ্চিম এশিয়ার এই দেশটির রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যমের বরাত দিয়ে বুধবার এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে জার্মান সংবাদমাধ্যম ডয়চে ভেলে।

বুধবার (৮ জুন) সকালে ইরানের পূর্বাঞ্চলে যাত্রীবাহী একটি ট্রেন লাইনচ্যুত হলে হতাহতের এই ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, ট্রেন লাইনচ্যুত হয়ে হতাহতের ঘটনা সামনে আসার পর দুর্ঘটনাস্থলে অ্যাম্বুলেন্স ও তিনটি হেলিকপ্টারসহ উদ্ধারকারী দল পাঠানো হয়েছে। তবে দুর্ঘটনাস্থলটি দুর্গম এলাকা হওয়ায় সেখানে যোগাযোগ ব্যবস্থা অনেকটা দুর্বল।

ডয়চে ভেলে বলছে, বুধবার সকালে মরুভূমির শহর তাবাস থেকে প্রায় ৫০ কিলোমিটার (৩০ মাইল) দূরে ট্রেন লাইনচ্যুতির এই ঘটনা ঘটে। দুর্গম এলাকার এই রেলপথটি তাবাস শহরের সাথে ইয়াজদ শহরকে সংযুক্ত করেছে।

মিডিয়া রিপোর্ট অনুযায়ী, ভোরের অন্ধকারে মধ্যে ট্রেনের সাতটি বগির মধ্যে চারটি লাইনচ্যুত হয়। তবে ট্রেন দুর্ঘটনায় নিহতের সংখ্যা ১৩ জন বলে জানিয়েছে বার্তাসংস্থা রয়টার্স।

ইরানের রেলওয়ের একজন কর্মকর্তা রাষ্ট্রীয় বার্তাসংস্থা আইআরএনএ’কে বলেছেন, দুর্ঘটনাকবলিত ট্রেনটি প্রথমে একটি এক্সকাভেটরের (খননকারী যন্ত্র) সঙ্গে ধাক্কা খায় এবং এরপরই লাইনচ্যুত হয়।

সমগ্র ইরানজুড়ে প্রায় ১৪ হাজার কিলোমিটার (৮ হাজার ৭০০ মাইল) বিস্তৃত রেললাইন রয়েছে। দেশটির ইতিহাসে সবচেয়ে ভয়াবহ ট্রেন দুর্ঘটনা ঘটেছিল ২০০৪ সালে।

সেসময় পেট্রোল, সার, সালফার এবং তুলা বোঝাই একটি ট্রেন নেইশাবুরের কাছে দুর্ঘটনায় পড়লে প্রায় ৩২০ জন নিহত এবং আরও ৪৬০ জন আহত হয়েছিলেন।