এই সপ্তাহে বলিউডের নতুন গান

আনতারা রাইসা : গান পছন্দ করেন না এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া দুষ্কর। সবাই গান গাইতে না পারলেও গান শুনেন না এমন কম মানুষ ই পাওয়া যাবে। মন খারাপ কিংবা বৃষ্টির দিনে গান যেন আমাদের মনে করিয়ে দেয় কোনও বিশেষ স্মৃতি। বিশেষ করে ঢাকার ট্র্যাফিক জ্যামে বসে কানে হেডফোন গুঁজে দিয়ে আমরা যেন নতুন রাজ্যে হারিয়ে যাই, কিছুক্ষণের জন্য এই জ্যামের শহর ভুলে যাই। আমাদের সবারই প্লে লিস্টে পছন্দের তালিকায় উপরের স্থান দখল করে রাখে ভারতীয় গান। আমরা সবসময়েই জানতে চাই বলিউডে কি কি নতুন নতুন গান আসলো। বলিউডের গান গুলি পছন্দের শীর্ষে থাকার একটি অন্যতম কারণ হল এর আকর্ষণীয় মিউজিক এবং বেশি বাজেট। খুব সুন্দর দৃশ্যায়ন এবং সুন্দর কোরিওগ্রাফির কারণে এই গানগুলি দেখতেও খুব ভালো লাগে। তাই দর্শকরা বরাবরই মুখিয়ে থাকেন বলিউডের নতুন নতুন চলচ্চিত্র ও গান রিলিজের জন্য। এই সপ্তাহে বলিউডের যেসব নতুন চলচ্চিত্র এবং তার গান রিলিজ হয়েছে তার একটি তালিকা দেয়া হলঃ

১। হাউজফুল ৪

যারা এর আগে হাউজফুলের অন্যান্য সিনেমা গুলি দেখেছেন তারা বুঝতে পারবেন এটি একটি কমেডি ধাঁচের সিনেমা। এটি ২৪ অক্টোবার মুক্তি পাবে। এর আগেও হাউজফুল সিনেমার ‘পাপা জাগ যায়েগা’, ‘ডু ইউ নো’, ‘ আনারকালি ডিস্কো চালি’ গান গুলি অনেক জনপ্রিয় হয়েছিল। এবার হাউজফুল ৪ এসেছে নতুন ধাঁচে, নতুন গল্পে। তাই এর গান গুলিও খুব আকর্ষণীয়। নতুন বের হওয়া গানগুলি হচ্ছে ,

বের হওয়ার সাথে সাথেই শয়তান কা শালা দর্শকদের মাঝে আলোড়ন ফেলে দিয়েছে। এই গানে অক্ষয় কুমারকে দেখা যাবে ১৪১৯ সালের এক রাজকুমার ‘বালা’ হিসেবে।  তিনি গানটি রিলিজের সাথে সাথে টুইটার এ একটি টুইট ও করেন এই লিখে যে ‘ অবশেষে বালার অপেক্ষা শেষ হল’। এই গানটির মিউজিক কম্পোজ করেছেন সোহাইল খান এবং লিরিক্স লিখেছেন পরিচালক নিজে , ফারহাদ সামজি। গানটি গেয়েছেন সোহাইল খান এবং বিশাল দাদলানি।

তবে সিনেমাটির আরেকটি গান ‘এক চুম্মা’ দর্শকদের সমালোচনার মুখে পড়েছে। অনেকে এটাকে নারীদের প্রতি অসম্মানের প্রদর্শন হিসেবে দেখছেন। এই গানে দেখা যায় নায়ক ( অক্ষয় কুমার)  গানের মাধ্যমে নায়িকার (কৃতি শ্যানন) কাছে  চুমু প্রত্যাশা করেন। যদিও সিনেমাটির নায়িকা কৃতি শ্যানন এই সমালোচনা কে  উড়িয়ে দিয়েছেন এই বলে যে প্রেমিক প্রেমিকার কাছে চুমু চাইতেই পারে, কোনও অপরিচিত ব্যক্তির কাছে তো আর চায়নি। এছাড়াও  তিনি বলেন অনেক গানে ছেলেদের ও এভাবে বলা হয় তখন তো কোনো প্রশ্ন তোলা হয়না।

এই গানটিও গেয়েছেন সোহাইল খান এবং আলতামাশ ফরিদি।

আরেকটি গান ‘দ্য ভূত সং গেয়েছেন মিকা সিং। এর গানটির একটি বিশেষত্ব হচ্ছে এর লিরিক্স, যা লিখেছেন পরিচালক নিজে। এই গানটিতে অনেক সেলেব্রিটি যেমন আলিয়া ভাট, মহেশ ভাট, সনু নিগাম এর নাম ব্যবহার করা হয়েছে।

২। সান্দ কি আঁখ

এটি একটি আত্মজীবনী ধাঁচের সিনেমা। এই সিনেমায় ভারতের সবচেয়ে পুরনো দুই বন্দুক চালনাকারী নারী চান্দ্র এবং প্রকাশি তমার জীবনী দেখানো হয়েছে। এর প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছেন দুই জনপ্রিয় অভিনেত্রি ভুমি পারেকার এবং তাপসি পান্নু। এই চলচ্চিত্রের পরিচালক তুষার হিরানন্দানি। সিনেমাটি মুক্তি পাবে ২৫ অক্টোবার।

এই চলচ্চিত্রের গানগুলি হচ্ছে ,

এই  সিনেমাটির সবগুলি গানই কম্পোজ করেছেন বিশাল মিশরা এবং লিরিক্স লিখেছেন রাজ শেখর।  বিশাল মিশরা এর আগেই আমাদের রেস ৩ , কবির সিং সিনেমার জনপ্রিয় গানগুলি উপহার দিয়েছেন। এই সিনেমাতে তিনি নিজেকে আবার প্রমাণ করেছেন।

সিনেমাটির টাইটেল গান উরতা তিতার গানটি সবার ই ভাল লাগার কথা এর সুন্দর লিরিক্স এবং ক্যাচি মিউজিক এর জন্য ।বিশেষ করে এই গানের ফোক ধাঁচের ড্রামস মিউজিক সবার মনোযোগ কাড়তে সক্ষম।  গানটি গেয়েছেন অনেক জনপ্রিয় গায়িকা সুনিধি চৌহান।

আরেকটি গান ওম্যানিয়া যেটি গেয়েছেন বিশাল দাদলানি  ও মিশরা । এই গানটি শুনে অনেকে এটাকে গ্যাংস অব অসিয়াপুর এর  ও অম্যানিয়া গানটির সাথে মিলিয়ে ফেলতে পারেন। তবে এই গানটির মিউজিক, ধাঁচ, টেম্পো সবই আপনাকে এই গানের সাথে আটকে থাকতে বাধ্য করবে । এই গানে রাজের লিরিক্স খুবই প্রশংসার দাবিদার ।

এই সিনেমার আরেকটি গান যেটির জন্য এই এলবাম টি সবার পছন্দের শীর্ষে থাকবে তা হচ্ছে আশা ভোসলে র ‘আসমা’ গানটি। সিনেমাতে এই গানটির পুরুষ এর অংশে গেয়েছেন বিশাল মিশরা।

এছাড়াও আরেকটি গান ঝুন্না ঝুন্না আপনাকে একটি ফোক অনুভুতি এনে দিবে । এই গানে ব্যবহৃত হারমোনিয়াম ও তবলা আপনাকে একটি গ্রামীণ ভাব দিবে। গানটি গেয়েছেন প্রতিভা সিং ও ক্রতিকা বোরকার।

৩। মেড ইন চায়না

জাতীয় পুরস্কার প্রাপ্ত মিখিল মুসালে এই সিনেমা টি পরিচালনা করেন। এই সিনেমাটির প্রধান চরিত্রে রয়েছেন রাজকুমার রাও এবং মৌনী রায়।

এই সিনেমাটির গান গুলি হল

টাইটেল গান ভালাম একটি রোমান্টিক ফোক ধাঁচের গান। মিউজিক কম্পোজ করেছেন সোচিন জিগার এবং গুজ্রাতি-হিন্দি লিরিক্স লিখেছেন প্রিয়া সারাইয়া। এই গানটির লিরিক্স আপনাকে সেই জগতে নিয়ে যেতে বাধ্য করবে । গানটি গেয়েছেন জনপ্রিয় গায়ক অরিজিত সিং যার গায়কি তে আপনি নিজেকে হারিয়ে ফেলবেন।

এরপরের গান সানেদো একটি খুবই মজার এবং ক্যাচি বিটের গান।  বলিউড মিউজিক চার্টের টানা দুই সপ্তাহ উপরে থাকা এই গানটি শুনলেই বুঝবেন কেন এটি সবার প্রিয়। এই গানটি একটি গুজরাতি ফোক যেটি নবরাত্রির আগে মুক্তি দেয়া হয়। গানটি গেয়েছেন মিকা সিং এবং বেনি দয়াল।

‘দ্য নারি নারি সং’ একটি ইজিপ্টশিয়ান পপ গান এর আদলে তৈরি করা।  এই গানটি শুনলে তাই আপনি হারিয়ে যাবেন মিশরিয়দের  জগতে। অসাধারন এই গানটি কম্পোজ করেন সচিন-জিগার জুটি। এবং গানটি গেয়েছেন বিশাল দাদলানি এবং জনিতা গান্ধী।

 

অনলাইন ডেস্ক/বিজয় টিভি

You might also like