এফ আর টাওয়ারের দুটি নকশা পেয়েছে কমিটি

৯১

বনানীতে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্ত এফ আর টাওয়ারের দুটি নকশা হাতে পেয়েছে গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের তদন্ত কমিটি। একটি নকশায় ভবনটিকে ১৮ তলা ও অন্যটি ২৩ তলা দেখানো হয়েছে।

কামাল আতাতুর্ক অ্যাভিনিউতে এফ আর টাওয়ারের সারিতে ১৬টি ভবন আছে। ভবনগুলো একটি আরেকটির গায়ে যেন একেবারে লেপ্টে আছে। এর মধ্যে ১৩টি বহুতল ভবন। রাজউকের একটি দল গতকাল মঙ্গলবার এই ভবনগুলো পরিদর্শন করে নানা অনিয়ম পেয়েছে।

নাম না প্রকাশের শর্তে গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের তদন্ত কমিটির এক সদস্য জানান, এফ আর টাওয়ারের তদন্তের কাজে রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (রাজউক) ও ভবন কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে প্রয়োজনীয় দলিলপত্র চাওয়া হয়। ভবনটির কর্তৃপক্ষ তদন্ত কমিটির কাছে একটি নকশা জমা দিয়েছে। তাতে ভবনের উচ্চতা ২৩ তলা দেখানো হয়েছে। কিন্তু রাজউক তদন্ত কমিটিকে যে নকশা দিয়েছে, তাতে উচ্চতা ১৮ তলা বলা আছে।

তদন্ত কমিটির সূত্র জানায়, প্রাথমিকভাবে ১৮ তলার নকশাটি তাদের কাছে আসল বলে মনে হয়েছে। ২৩ তলার নকশাটি সঠিক কি না, সে–সংক্রান্ত কাগজপত্রও রাজউক থেকে চাওয়া হয়েছে। রাজউক এ–সংক্রান্ত কিছু নথি সরবরাহ করেছে। তবে আরও যাচাই–বাছাই ছাড়া বলা যাচ্ছে না কোন নকশাটি ঠিক।

এসব বিষয়ের সঙ্গে সম্পৃক্ত বেশ কিছু নথি তদন্ত কমিটিকে দিয়েছে রাজউক। নথিপত্র নিয়ে গতকাল মঙ্গলবার সকালে দ্বিতীয় দফা বৈঠকে বসেছে কমিটি। কমিটির সদস্যরা সব তথ্য যাচাই–বাছাই করছেন।

গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের কমিটি ছাড়াও এফ আর টাওয়ারে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনাটি তদন্তে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, ত্রাণ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রণালয়, রাজউক, ফায়ার সার্ভিস, ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন বাংলাদেশ (আইইবি) পৃথক কমিটি করেছে। তবে গতকাল পর্যন্ত কোনো কমিটির প্রতিবেদনই পাওয়া যায়নি।

প্রসঙ্গ, গত ২৮ মার্চ দুপুরে বনানীর এফ আর টাওয়ারে আগুন লাগে। এতে ২৬ জন মারা যান।

নিউজ ডেস্ক / বিজয় টিভি

You might also like