ওটিটি প্ল্যাটফর্ম ‘সিনেমাটিক’এ যুক্ত হচ্ছে শাকিব-জয়া-মাহির ছবি

১৯৯

দেশের প্রথম ওটিটি প্ল্যাটফর্ম ‘সিনেমাটিক’। দেশ ও প্রবাসী বাঙালি দর্শকদের কথা মাথায় রেখেই প্ল্যাটফর্মটি ডেভেলপ করা হয়েছে। নতুন বছরে দর্শকবান্ধব ও মানসম্পন্ন কন্টেন্ট আর নতুন পরিকল্পনা নিয়ে আসছে দেশের প্রথম ওটিটি প্ল্যাটফর্ম ‘সিনেমাটিক’।

দর্শকরা সহজেই প্ল্যাটফর্মটিতে দেশের সব মোবাইল অপারেটর, নগদ ও ভিসা, ক্রেডিট ও মাস্টার্ড কার্ড দিয়ে নির্ধারিত পরিমাণ অর্থের মাধ্যমে সাবস্ক্রাইব করে সকল কন্টেন্ট উপভোগ করতে পারবেন। প্ল্যাটফর্মটির নতুন এই যাত্রায় অ্যাপটিতে যুক্ত হচ্ছে শাকিব-মাহি-জয়ার সিনেমা।

অ্যাপটিতে বিশেষ করে দেশের নতুন নতুন বাংলা সিনেমার দিকে নজর দেয়া হচ্ছে। থাকছে কালজয়ী কয়েক দশকের বাংলা সিনেমার বিশাল সংগ্রহও। লাইভ টেকনোলজিসের একটি ওটিটি প্ল্যাটফর্ম এই ‘সিনেমাটিক’।

প্ল্যাটফর্মটির নতুন এই যাত্রায় অ্যাপটিতে আরও যুক্ত হচ্ছে নুসরাত ফারিয়া, বিদ্যা সিনহা মিম, স্পর্শিয়া, অপূর্ব, নিশো, চঞ্চল চৌধুরী, মোশাররফ করিম, মেহজাবিন, তানজিন তিশাদের মতো বড় বড় তারকাদের সব সিনেমা, নাটক ও ওয়েব সিরিজ।

প্রতিষ্ঠানটির পরিচালক তামজিদ অতুল প্ল্যাটফর্মটিকে ‘বাংলা সিনেমার আর্কাইভ’ বলে মনে করছেন। তার ভাষ্য, প্রেক্ষাগৃহে প্রদর্শনের পর বাংলাদেশের সিনেমাগুলো সংরক্ষণের সু-ব্যবস্থা নেই। অনেক কালজয়ী সিনেমা সংরক্ষণের অভাবে হারিয়ে গেছে। সবগুলো ছবিই পাওয়া যাবে ‘সিনেমাটিক’ অ্যাপে।

বর্তমানে প্রায় ১০০ সিনেমা রয়েছে প্ল্যাটফর্মটিতে সবগুলো ছবিই প্রায় নতুন! তার মধ্যে রয়েছে শাকিব খানের ‘ক্যাপ্টেন খান’, ‘চিটাগাইংয়া পোয়া নোয়াখাইল্ল্যা মাইয়া’, ‘সুপার হিরো’সহ অন্য তারকাদের সিনেমাও। ধীরে ধীরে দুই হাজারেরও বেশি ছবি এখানে যুক্ত করার পরিকল্পনা প্রতিষ্ঠানটির।

You might also like