করোনা চিকিৎসায় হিমসিম খাচ্ছে সাতক্ষীরা স্বাস্থ্য বিভাগ

৩০

সাতক্ষীরায় দ্বিতীয় দফার সাত দিনের লকডাউন চলছে ঢিলেঢালা ভাবে। মোড়ে মোড়ে রয়েছে পুলিশ ব্যারিকেড। বিনা কারণে মানুষ ও যানবাহন চলাচল নিয়ন্ত্রণ করছে তারা। খোলা রয়েছে জরুরি সেবা প্রতিষ্ঠান। বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে খুলনা ও যশোর থেকে সাতক্ষীরায় প্রবেশের পথ।

এদিকে, সাতক্ষীরায় পর্যাপ্ত বেড ও ডাক্তার ও জনবল সংকটে করোনা রোগীদের চিকিৎসা দিতে হিমসিম খাচ্ছে স্বাস্থ্য বিভাগ। বর্তমানে জেলায় ৬৮৩ জন করোনা পজিটিভ রোগীর ১৩৫ জন সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ও ৩৫ জন সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। অন্য রোগীরা রয়েছেন প্রাতিষ্ঠানিক ও পারিবারিক কোয়ারেন্টাইনে।

সাতক্ষীরার সিভিল সার্জন ডা. হুসাইন শাফায়েত জানান, মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ৮ টি আইসোলেশন ও ১৫০ টি বেড ছাড়াও আট বেডের আইসিইউ রয়েছে। এছাড়া সদর হাসপাতালের করোনা ইউনিটে বেড রয়েছে মাত্র ৩৫ টি। আর বেড ও জনবল না থাকায় চিকিৎসা দিতে একটু সমস্যা হচ্ছে।

এদিকে রোববার (১৩ জুন) সকাল পর্যন্ত গত ২৪ ঘন্টায় সাতক্ষীরায় ৮১ জনের নমুনা পরীক্ষায় ৫২ জনের করোনা পজেটিভ এসেছে। সংক্রমনের হার ৬৪.১৯ শতাংশ।