কসবায় দুই ট্রেনের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ১৬, আহত অর্ধশতাধিক

১১৬

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবায় দুই ট্রেনের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত হয়েছে অন্তত ১৬ জন, আহত হয়েছে প্রায় অর্ধশতাধিক। গুরুতর আহত অবস্থায় আরো যাত্রী মারা যেতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। গতকাল সোমবার দিবাগত রাত ২ টা ৪৮ মিনিটে উপজেলার মন্দবাগে চট্টগ্রাম থেকে ঢাকাগামী তূর্ণা নিশীথা ও সিলেট থেকে চট্টগ্রামগামী উদয়ন এক্সপ্রেস ট্রেন দুটির মধ্যে সংঘর্ষের এ ঘটনা ঘটে। এ সময় একটি ট্রেনের একাধিক বগি আরেকটি ট্রেনের কয়েকটি বগির ওপর উঠে যায়।

দুই ট্রেনের মুখোমুখি সংঘর্ষ
কসবায় দুই ট্রেনের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত হয়েছে ১৬ জন

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার জেলা প্রশাসক হায়াত উদ দৌলা দুর্ঘটনার তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেন। তিনি জানান, উদ্ধার তৎপরতা চালানো হচ্ছে। এখন পর্যন্ত ১৫ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। ঘটনাস্থলের কাছে একটি অস্থায়ী ক্যাম্প খোলা হয়েছে। এরই মধ্যে ৬টি লাশ হস্তান্তর করা হয়েছে, এখনো পরিচয় পাওয়া যায়নি ১০ জনের।

দুই ট্রেনের মুখোমুখি সংঘর্ষ

স্টেশন ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, তূর্ণা নিশীথা ট্রেনের চালক সিগন্যাল (সংকেত) অমান্য করায় এই দুর্ঘটনা ঘটে। মন্দবাগ রেলস্টেশনে দাঁড়ানোর জন্য এই সিগন্যাল দেওয়া হয়। ওই সিগন্যালে সিলেট থেকে ছেড়ে আসা চট্টগ্রামগামী উদয়ন এক্সপ্রেস প্রধান লেন থেকে ১ নম্বর লাইনে যেতে শুরু করে। ট্রেনটির ছয়টি বগি ১ নম্বর লাইনে উঠতে পেরেছিল। অন্য বগিগুলো প্রধান লেনে থাকা অবস্থায় তূর্ণা নিশীথা সিগন্যাল অমান্য করে। এতে তূর্ণা নিশীথার একাধিক বগি ওই ট্রেনের কয়েকটি বগির ওপর উঠে যায়।

দুই ট্রেনের মুখোমুখি সংঘর্ষ
কসবায় দুই ট্রেনের মুখোমুখি সংঘর্ষ

এতে উদয়নের তিনটি বগি দুমড়েমুচড়ে যায়। নিহত ১৫ জন সবাই উদয়নের যাত্রী বলে ধারণা করা হচ্ছে।দুর্ঘটনার পর ঢাকার সঙ্গে চট্টগ্রাম ও সিলেটের রেলযোগাযোগ বন্ধ রয়েছে।

অনলাইন নিউজ ডেস্ক/ বিজয় টিভি

You might also like