কানাডার কাঁচামাল বাংলাদেশে প্রক্রিয়াজাত করে বাণিজ্য ও কর্মসংস্থান বাড়ানো সম্ভব – বাণিজ্যমন্ত্রী

কানাডার বিভিন্ন কাঁচামাল বাংলাদেশে প্রক্রিয়াজাত করে পণ্যের মূল্য সংযোজন ঘটিয়ে স্থানীয় ও বিশ্ব বাজারে বিক্রির মাধ্যমে উভয় দেশের বাণিজ্য বৃদ্ধি করা সম্ভব বলে জানিয়েছেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুন্শি। এতে করে ব্যবসায়ীগণ যেমন লাভবান হবেন, তেমনি বাংলাদেশে বৈদেশিক বিনিয়োগসহ বিপুল কর্মসংস্থানেরও সৃষ্টি হবে।

বাণিজ্যমন্ত্রী কানাডার অটোয়ায় বাংলাদেশ হাইকমিশন আয়োজিত বাংলাদেশ ও কানাডার সাসকাচুয়ান প্রদেশের মধ্যে দ্বি-পাক্ষিক বাণিজ্য ও বিনিয়োগ বৃদ্ধি বিষয়ক সেমিনারে এসব কথা বলেন।

পরে গোল টেবিল বৈঠকে বাণিজ্যমন্ত্রী বাংলাদেশ ও কানাডার মধ্যকার দ্বি-পাক্ষিক সম্পর্কের বিভিন্ন দিক তুলে ধরে দু’দেশের মধ্যকার বর্তমান বাণিজ্যের অগ্রগতির কথা তুলে ধরে বলেন, সাসকাচুয়ান প্রদেশ দু’দেশের বাণিজ্য বৃদ্ধিতে অসমান্য অবদান রেখে চলেছে, যা আরো বৃদ্ধি করা সম্ভব। বৈঠকে মূলত এ প্রদেশ ও বাংলাদেশের মধ্যকার বাণিজ্য ও বিনিয়োগ কিভাবে বৃদ্ধি করা যায়, সে বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়।

অনুষ্ঠানে পাওয়ার পয়েন্ট প্রেজেন্টেশনের মাধ্যমে বাংলাদেশ ও সাসকাচুয়ান প্রদেশের মধ্যে দ্বি-পাক্ষিক বাণিজ্য সম্পর্কিত তথ্যাদি উপস্থাপন করেন বাংলাদেশ হাইকমিশনের কাউন্সেলর (বাণিজ্যিক) মোঃ শাকিল মাহমুদ। কানাডায় নিযুক্ত বাংলাদেশের হাইকমিশনার মোঃ মিজানুর রহমান সেমিনারে বাংলাদেশের অর্থনীতি ও সার্বিক পরিবেশ ও বাণিজ্য সম্ভাবনা তুলে ধরেন। বর্তমান সরকারের যুগোপযোগী ট্যাক্স, উদার বাণিজ্য ও বিনিয়োগ সম্ভাবনার বিভিন্ন দিক ও অগ্রগতির বিষয়ে সভায় উপস্থিত আলোচকদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর প্রদান করেন যথাক্রমে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের চেয়ারম্যান মোঃ মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া, বাংলাদেশ অর্থনৈতিক অঞ্চল কর্তৃপক্ষের নির্বাহী চেয়ারম্যান পবন চৌধুরী, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব তপন কান্তি ঘোষ, বাংলাদেশ ব্যাংকের মহাব্যবস্থাপক মোহাম্মদ খুরশীদ ওয়াহাব, বাংলাদেশ ফার্মাসিউটিক্যাল এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক এস এম সফিউজ্জামান, বাংলাদেশ সফটওয়্যার এক্সপোর্টার এসোসিয়েশন (বেসিস) এর সভাপতি সৈয়দ সাদাত আলমাস কবির এবং কেনচেম বাংলাদেশের সভাপতি মাসুদুর রহমান।

নিউজ ডেস্ক / বিজয় টিভি