কালিয়াকৈরে এক গৃহবধুর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

৮৫

গাজীপুরের কালিয়াাকৈর উপজেলার জালশুকা এলাকায় পারভিন আকতার (৩২) নামে গৃহবধূর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

সোমবার সকালে পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য গাজীপুর শহীদ তাজদ্দিন মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করেন। তবে পরিবারের দাবি তাকে হত্যার পর ফ্যানের ঝুলিয়ে রেখেছে। নিহত পারভিন আক্তার উপজেলার জালশুকা গ্রামের জসিম উদ্দিনের স্ত্রী।

পরিবার ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, পনের বছর আগে জালশুকা গ্রামের জসীম উদ্দীনের সাথে বিয়ে হয় পারভিন আক্তারের। বিয়ের পর থেকে পারভিনকে টাকার জন্য নির্যাতন করতেন স্বামী। স্বামী জসীম উদ্দীন পেশায় একজন ব্যবসায়ী। সোমবার ভোরে জসীম উদ্দীন স্ত্রীকে ঘরে রেখে ব্যবসায়ীর কাজে বের হয়ে যায়। দশটার দিকে জসিম উদ্দিন বাসায় ফিরে ঘরের দরজা বন্ধ দেখতে পায়। পরে দরজা ধাক্কা দিলে দেখতে পায় তার স্ত্রী ফ্যানের সাথে ঝুলে আছে।

তার ডাক চিৎকারে আশেপাশের লোক ছুটে আসে। পরে এলাকাবাসী পুলিশকে খবর দেয়, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে থেকে লাশটি উদ্ধার করে।

তবে পরিবারের দাবি বিয়ের পর থেকেই বিভিন্ন সময় তাকে টাকার জন্য অত্যাচার করে আসছে। তাকে হত্যা করে ফ্যানের সাথে ঝুলিয়ে রেখেছে।

কালিয়াকৈর থানার পুলিশের এসআই মোয়াজ্জেম জানান,খবর পেলে লাশটি উদ্ধার করা হয়েছে। তবে ময়নাতদন্তের পরে বলা যাবে হত্যা না আত্মহত্যা।

অপর দিকে উপজেলার বারবাড়িয়া এলাকায় সোমবার সকালে মনোরাজ বংশী নামে এক বৃদ্দের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

You might also like