কুলাউড়ার অপহৃত নারী চট্টগ্রাম থেকে উদ্ধার, ধর্ষক গ্রেফতার

মৌলভীবাজারের কুলাউড়ার এক গৃহবধূকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে (৩০) ধর্ষণের অভিযোগে এক যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

শনিবার (১৫ জানুয়ারি) চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন বন্দর থানার কলসী দিঘীরপাড় এলাকা থেকে ওই গৃহবধূকে উদ্ধার করা হয়।

এ সময় ওই গৃহবধূকে ধর্ষণের অভিযোগে রাসেল আহমদকে (২৫) গ্রেফতার করে কুলাউড়ায় নিয়ে আসা হয়।

পুলিশ জানায়, কুলাউড়ার এক গৃহবধূকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলার আলতা মিয়ার ছেলে রাসেল গত ৫ জানুয়ারি পালিয়ে যায়। রাসেল ওই গৃহবধূকে চট্টগ্রামে কলসী দিঘীরপাড় এলাকায় একটি বাসায় রেখে ধর্ষণ করেন।

এদিকে গৃহবধূর ভাসুর এ ঘটনায় থানায় সাধারণ ডায়েরি করেন। পুলিশ তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় ভিকটিম ও অভিযুক্তের অবস্থান চট্টগ্রামে শনাক্ত করেন। পরে কুলাউড়া থানা পুলিশ চট্টগ্রামের কলসী দিঘীরপাড় এলাকায় একটি বাসায় অভিযান চালিয়ে রাসেলসহ ওই গৃহবধূকে উদ্ধার করেন।

শনিবার (১৫ জানুয়ারি) বিকেলে ভিকটিম গৃহবধূ থানায় বাদী হয়ে রাসেলকে অভিযুক্ত করে মামলা দায়ের করেন। মামলায় রাসেলকে গ্রেফতার দেখিয়ে মৌলভীবাজার আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়।

কুলাউড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বিনয় ভূষণ রায় বলেন, বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে রাসেল ওই গৃহবধূকে পালিয়ে নিয়ে যায় এবং পালাক্রমে ধর্ষণ করে। ওই গৃহবধূ বাদী হয়ে ধর্ষণ মামলা দায়ের করলে আটক রাসেলকে গ্রেফতার দেখিয়ে শনিবার বিকেলে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

%d bloggers like this: