কুষ্টিয়ায় নারীর রহস্যজনক মৃত্যু

৪২

কুষ্টিয়া শহরে শেফালী বিশ্বাস (৫৫) নামে এক নারীর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে।

সোমবার (১৮ এপ্রিল) সন্ধ্যা ৬টার দিকে শহরের হাউজিং ডি ব্লকে এ ঘটনা ঘটে। নিহতের পরিবারের দাবি, শেফালীকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে।

শেফালী বিশ্বাস কুষ্টিয়া শহরের হাউজিং ডি ব্লক এলাকার পিডিবির অবসরপ্রাপ্ত প্রকৌশলী আনন্দ কুমার বিশ্বাসের স্ত্রী।

নিহতের স্বামী আনন্দ কুমার বিশ্বাস বলেন, বাড়ির চারতলায় নির্মাণকাজ চলছিল। আমি সেখানে মিস্ত্রিদের সঙ্গে ছিলাম। কাজ শেষে বাসায় (দ্বিতীয় তলা) এসে দেখি, ঘরের মেঝেতে রক্ত ও ছাই পড়ে আছে। তার পাশে আমার স্ত্রী পড়ে আছে। তার শাড়ি ও শরীর পোড়া। এছাড়াও তার গলা ও চোখের ওপরে জখমের চিহ্ন ছিল। ফাঁকা বাসায় কেউ ডাকাতি করতে এসে তাকে কেউ খুন করতে পারে।

তিনি আরও বলেন, শেফালীকে গুরুতর অবস্থায় উদ্ধার করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যাই। কিছুক্ষণ পর চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। আমার মনে হচ্ছে এটি একটি হত্যাকাণ্ড। কে বা কারা তাকে হত্যা করেছে। আমি খুনিদের বিচার চাই।

শেফালী বিশ্বাসের ভাই দীপক বিশ্বাস বলেন, শেফালীর শাড়ি ও শরীরের সামান্য অংশ পুড়েছে। এতে তার মৃত্যু হতে পারে না। এর মধ্যে কোনো রহস্য আছে। এটি পরিকল্পিত হত্যাকাণ্ড। আমি হত্যাকারীদের বিচার চাই।

ঘটনাস্থল পরিদর্শনকালে সিআইডির পরিদর্শক স্বপন কুমার বলেন, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, এটি পরিকল্পিত হত্যাকাণ্ড। ঝিনাইদহ থেকে সিআইডির বিশেষজ্ঞ দল এসে আলামত সংগ্রহ করেছে। তদন্ত চলছে, বিস্তারিত পরে জানানো হবে।

কুষ্টিয়া মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ছাব্বিরুল আলম বলেন, মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

You might also like
%d bloggers like this: