কোভিড-১৯ মোকাবিলায় বাংলাদেশের প্রশংসা করলো ইউএনডিপি ও আইওএম

৫২

কোভিড-১৯ সফলভাবে মোকাবিলা করায় বাংলাদেশ সরকারের প্রশংসা করলো জাতিসংঘ উন্নয়ন কর্মসূচি (ইউএনডিপি) এবং আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থা (আইওএম)।

আজ ইউএনডিপি’র আয়োজনে “ইনক্লুডিং মাইগ্রেন্টস এন্ড কমিউনিকেশনস ইন দ্য সোসিও-ইকোনোমিক রিকভারি: এক্সপেরিয়েন্স ফ্রম দ্য আইওএম-ইউএনডিপি পার্টনারশিপ অন দ্য কোভিড-১৯” শীর্ষক ভার্চুয়াল অনুষ্ঠানে এ প্রশংসা করা হয়।

বাংলাদেশ সরকার গতবছর দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও জলবায়ুগঠিত অভ্যন্তরীণ বাস্তুচ্যুতি বিষয়ক জাতীয় কৌশলপত্র প্রণয়ন করেছে এবং তদনুযায়ী কর্মপরিকল্পনা চূড়ান্তকরণ চলমান রয়েছে। ইউএনডিপি’র প্রতিনিধি David Khoudour বাংলাদেশ সরকারের এই কৌশলপত্রের ভুয়সী প্রশংসা করেন । আইওএম’র মহাপরিচালক Antonio Vitorino কুড়িগ্রাম জেলায় কোভিড-১৯ এর সময়ে বাস্তুচ্যুত মানুষের গন্তব্য-নির্ধারণে যে পদ্ধতির পাইলটিং করা হয়েছে তার প্রশংসা করেন ।

তিনি এ পদ্ধতি অন্যান্য স্থানেও বাস্তবায়ন করতে মতামত ব্যক্ত করেন । আইওএম এবং ইউএনডিপির যৌথ উদ্যোগে পাইলটকৃত এ বাস্তুচ্যুতি ট্র্যাকিং পদ্ধতি বাস্তুচ্যুত মানুষের গতিবিধি এবং তাদের প্রয়োজন নিরূপণ করতে সহায়ক হবে বলে তিনি মন্তব্য করেন ।

বাংলাদেশ থেকে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ সচিব মোঃ মোহসীন অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করে কোভিড-১৯ মোকাবিলায় সরকারের পদক্ষেপসমূহ উপস্থাপনকালে বলেন, বাংলাদেশ সরকার নগদটাকা ও খাবার-সরবরাহের মাধ্যমে সাতকোটি মানুষকে মানবিক সহায়তা প্রদান করেছে। মানুষের জীবন-জীবিকার সহায়তার জন্য ক্ষুদ্র উদ্যোক্তাদের প্রণোদনা প্রদান করেছে। সরকার ৮ লাখ ৮৪ হাজার দুর্যোগসহনীয় ঘরনির্মাণপূর্বক বাস্তুচ্যুত এবং গৃহহীন মানুষের পূনর্বাসনের পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে।