গাইবান্ধায় নবজাতক বিক্রি করে ক্লিনিকের বিল পরিশোধ

৬২

গাইবান্ধায় ক্লিনিকের বিল পরিশোধ করতে না পেরে ১৬ হাজার টাকায় নবজাতককে বিক্রি করেছে এক দরিদ্র বাবা-মা।

জানা গেছে, গাইবান্ধা সদর উপজেলার রুপার বাজার এলাকার শোলাগাড়ী গ্রামের বাসিন্দা শাজাহান মিয়া। দিনমজুর শাজাহান মিয়ার অভাব-অনটনের সংসার। স্ত্রী আমেনা বেগমের প্রসব বেদনা উঠলে নিয়ে আসেন মাতৃসদনে। সেখানে আনার পর বলা হয়, পেটে বাচ্চা উল্টো অবস্থায় রয়েছে। তাই অপারেশন করতে হবে। কিন্তু টাকা না থাকায় সেখান থেকে আমেনা বেগমকে নিয়ে চলে আসেন তিনি।

এরপর পল্লী চিকিৎসক জাকির হোসেনের পরামর্শে গত ১৩ সেপ্টেম্বর আমেনাকে নিয়ে গাইবান্ধা শহরের যমুনা ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়। সেখানে অপারেশনের মাধ্যমে ছেলে সন্তানের জন্ম দেন আমেনা বেগম (হাসপাতালে আঞ্জুলি নামে ভর্তি করা হয়।

এর মধ্যে অবস্থার উন্নতি হলে গত ১৭ সেপ্টেম্বর আমেনা বেগমের রিলিজ অর্ডার করে ক্লিনিক কর্তৃপক্ষ। বিল করা হয় ১৬ হাজার টাকা। এই টাকা পরিশোধ করতে না পেরে বিপদে পড়েন আমেনা-শাজাহান দম্পতি।

পরে ক্লিনিকের শিশু বিক্রি চক্রের সহযোগিতায় ১৬ হাজার টাকার বিনিময়ে সন্তানকে বিক্রি করে দেন। সেই টাকা দিয়ে ক্লিনিকের বিল পরিশোধ করেন তারা।

এ ব্যাপারে ক্লিনিকের মালিক ফরিদুল হক সোহেল বলেন, ‘রিলিজের সময় আমাদের খাতায় ৯ হাজার টাকা জমা দিয়েছে। নবজাতক বিক্রির ঘটনা ক্লিনিক ক্যাম্পাসে হয়নি। যদি হয়ে থাকে তাহলে বাইরে হয়েছে।’

নিউজ ডেস্ক/ বিজয় টিভি

You might also like