চার দিনের ছেলে শিশুকে নিয়ে আত্মহত্যা করলে মা

৯৩

ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরের একটি বেসরকারি হাসপাতালে ছাদ থেকে পড়ে সীমা আক্তার (২৫) এক গৃহবধু ও তার চার দিনের ছেলে শিশুকে নিয়ে আত্মহত্যা করেছে।

শুক্রবার সকালে শহরের পুরাতন জেলরোড এলাকার লাইফ কেয়ার হাসপাতালের সামনে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত সীমা সদর উপজেলার ঘাটিয়ার গ্রামের প্রবাসী মনির মিয়ার স্ত্রী।
পুলিশ ও পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, সীমাকে গত ১৬ অক্টোবর পরিবারের লোকজন বাচ্চা প্রসব করার জন্য লাইফ কেয়ার নামে একটি বেসরকারি ভর্তি করে। তারপর তার ছেলে বাচ্চা প্রসব হলে তিন দিন ধরে চিকিৎসা চলছিল।

আজ শুক্রবার সকাল ১০টায় হাসপাতালের বিল পরিষদ করে হাসপাতাল ত্যাগ করার কথা। বিল নিয়ে তার মা রেহেনা বেগমের সাথে তর্কাতর্কি হয়। পরে মা হাসপাতালের রুম থেকে নিচে বের হয় নাস্তা আনার জন্য। নাস্তা আনার পর সে রুমে এসে দেখে তার মেয়ে নেই। পরে অন্যান্য রোগীর স্বজনদের কাছ থেকে জানতে পারে তার মেয়ে হাসপাতালের ছাদ ওঠে পাশে একটি হাসপাতালের ছাদের ছয় তলা থেকে লাফ দিয়ে প্রথমে তার নবজজাতক ছেলে ফেলে পরে সে নিজে পড়ে আত্মহত্যা করে।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সেলিম উদ্দিন জানান, হাসপাতালের বিল নিয়ে অথবা অন্য যে কোন কারনেই হোক হত্যার ঘটনা তদন্ত করা হবে।

নিউজ ডেস্ক / বিজয় টিভি

You might also like