চিনিকল বন্ধ করা হয়নি, স্থগিত রাখা হয়েছে: শিল্পমন্ত্রী

৭৫

শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ুন বলেছেন, দেশে চিনি ও খাদ্য শিল্প করপোরেশনের আওতাধীন ১৫টি চিনিকল রয়েছে। যার মধ্যে একটি মিল কেরু অ্যান্ড কোম্পানি (বিডি) লিমিটেড লাভজনক। বাকি ১৪টি মিল অলাভজনক। ২০২০-২০২১ মাড়াই মৌসুমের জন্য ছয়টি চিনিকলের মাড়া‌ই কার্যক্রম স্থগিত রাখা হয়েছে। কোনো চিনিকল বন্ধ করা হয়নি। চিনিকল বন্ধ করার বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি।

মঙ্গলবার (১৯ জানুয়ারি) একাদশ জাতীয় সংসদের একাদশ অধিবেশনের প্রশ্নোত্তর পর্বে পৃথক দুই প্রশ্নের উত্তরে মন্ত্রী সংসদকে এসব কথা জানান।

দেশের চিনি শিল্পকে রক্ষার লক্ষ্যে ১৪টি চিনিকলে বর্জ্য পরিশোধনাগার স্থাপনের প্রকল্প চলমান রয়েছে জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, চিনি শিল্পের আধুনিকায়ন ও পরিবেশ সুরক্ষায় বিএসএফআসি’র আওতায় দুটি উন্নয়ন প্রকল্প জিওবি অর্থায়নে বাস্তবায়নের কাজ চলমান রয়েছে। প্রকল্পগুলো হলো- বিএমআর অব কেরু অ্যান্ড কোং লি ও ১৪টি চিনিকলে বর্জ্য পরিশোধনাগার স্থাপন।

মন্ত্রী জানান, ২০২০-২০২১ অর্থবছরে এডিপিতে বরাদ্দবিহীন অননুমোদিত নতুন প্রকল্প প্রস্তাবনা হিসেবে ছয়টি চিনিকলে পুরাতন সেন্ট্রিফিউগ্যাল মেশিন, জুস ক্লারিফায়ার এবং রোটারি ভ্যাকুয়াম ফিল্টারের জন্য আধুনিক যন্ত্রপাতি প্রতিস্থাপন, কেরু অ্যান্ড কোং (বিডি) লি, অণুজীব ল্যাবরেটরি আধুনিকীকরণসহ কেরু ডিস্টিলারি প্ল্যান্টের জন্য ইটিপি স্থাপন, রাজশাহী চিনিকলে ফল প্রক্রিয়াজাতকরণ ও বোতলজাতকরণ এবং পাল্ল প্ল্যান্ট স্থাপন, বাংলাদেশ চিনি ও খাদ্য শিল্প করপোরেশনের জনবলের সক্ষমতা বৃদ্ধি এবং ঠাকুরগাঁও চিনিকলের আধুনিকায়ন, বহুমুখীকরণ ও বিটসুগার প্ল্যান্ট স্থাপনের সম্ভাব্যতা যাচাই অন্তর্ভুক্ত আছে।

তিনি আরও জানান, নাটোরের লালপুর উপজেলা, ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলা, ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলা এবং চুয়াডাঙ্গার দামুহুদা উপজেলায় বৈদেশিক বিনিয়োগের মাধ্যমে শিল্প কারখানা স্থাপনের সম্ভাব্যতা যাচাই কার্যক্রম চলমান।

অপর এক প্রশ্নের উত্তরে মন্ত্রী জানান, বিসিকের আওতায় সারাদেশে উন্নত অবকাঠামো সমৃদ্ধির লক্ষ্যে ৭৬টি বিসিক শিল্পনগরী স্থাপিত হয়েছে। সরকারের বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচির আওতায় চলতি ২০২০-২১ অর্থবছরে ১২টি শিল্পনগরী প্রকল্প স্থাপনের কাজ বাস্তবায়নাধীন রয়েছে।

You might also like