জাতিসংঘে স্থায়ী প্রতিনিধি হতে অনিচ্ছুক : দিনা হাবিব পাওয়েল

পাওয়েল ট্রাম্প প্রশাসনের শুরুর দিকে হোয়াইট হাউজে কাজ করেছেন। ২০১৮ সালে তিনি গোল্ডম্যান স্যাক্সে ফেরেন। তিনি সাবেক প্রেসিডেন্ট জর্জ বুশের আমলে শিক্ষা ও সংস্কৃতি বিষয়ক সহকারী সচিব, পাবলিক অ্যাফেয়ার্স ও পাবলিক ডেমোক্রেসি বিষয়ক উপসচিব হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেছেন। প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রশাসনে তিনি জাতীয় নিরাপত্তা বিষয়ক ডেপুটি সেক্রেটারি ছিলেন।

জাতিসংঘে সম্ভাব্য মার্কিন স্থায়ী প্রতিনিধি হিসেবে বিবেচিত হতে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন গোল্ডম্যান স্যাক্সের কর্মকর্তা দিনা হাবিব পাওয়েল। বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, নিজের অপারগতার কথা সরাসরি প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে জানিয়েছেন পাওয়েল।

জাতিসংঘে সর্বশেষ নিয়োজিত থাকা স্থায়ী প্রতিনিধি নিকি হ্যালির গত মঙ্গলবার (৯ অক্টোবর) আকস্মিকভাবে পদত্যাগের কারণে নতুন নিয়োগের প্রেক্ষিত তৈরি হয়েছে। এখন হ্যালির পদে কাকে নিয়োগ দেওয়া হবে তা নির্ধারণে কাজ করেছে হোয়াইট হাউজ। ২০১৮ সালের জানুয়ারিতে ট্রাম্প প্রশাসনের আমলে নিয়োগ পেলেও তিনি মন্তব্য করেছিলেন, ট্রাম্পের বেফাঁস মন্তব্যের কারণে বিশ্বযুদ্ধ শুরু হয়ে যেতে পারে।

রয়টার্স জানিয়েছে, হ্যালি আগে থেকেই জানিয়ে আসছিলেন, এ বছরের শেষ নাগাদ তিনি পদত্যাগ করবেন। তখন থেকেই ট্রাম্প জাতিসংঘে মার্কিন স্থায়ী প্রতিনিধি হওয়ার বিষয়ে পাওয়েলের সঙ্গে কথা বলা শুরু করেন। অন্যদিকে হোয়াইট হাউজে তাকে মনোনয়ন দেওয়ার বিষয়ে কিছুটা দ্বিধাও ছিল সংশ্লিষ্ট মার্কিন কর্মকর্তাদের। সর্বশেষ ফোনে কথা বলে দিনা হাবিব পাওয়েল ট্রাম্পকে জানিয়ে দিয়েছেন, তিনি জাতিসংঘে মার্কিন স্থায়ী প্রতিনিধি হিসেবে নিয়োগ পেতে চান না।

নিউজ ডেস্ক / বিজয় টিভি

You might also like