টাকার অভাবে বিশ্ববিদ্যালয়ের গণ্ডি পার করতে পারেননি অভিষেক

৩০

বলিউডের ‘ড্রপড আউট’দের খাতায় ‘সফল অভিনেতা’ অভিষেক বচ্চন। সম্প্রতি ‘বব বিশ্বাস’ ছবির প্রচারণায় এসে নিজেদের পারিবারিক দুঃসময় নিয়ে অকপটে কথা বলেছেন তিনি। অভিষেক জানিয়েছেন মুম্বাই, দিল্লি আর সুইজারল্যান্ডের বোর্ডিং স্কুল শেষে উচ্চমাধ্যমিক পাসই থেকে যেতে হয়েছে তাকে। যুক্তরাষ্ট্রের ম্যাসাচুয়েটসের বোস্টন বিশ্ববিদ্যালয়ে ‘লিবারেল আর্টস ও পারফর্মিং আর্টস’ নিয়ে পড়াশোনা করলেও অর্থ অভাবে বিশ্ববিদ্যালয়ের গণ্ডি পার করতে পারেননি তিনি।

তখন তীব্র অর্থসংকটে পড়েছিলেন অমিতাভ বচ্চন। উপায়ান্তর না দেখে অমিতাভ তখন জমানো সব অর্থ দিয়ে ‘এবিসিএল’  নামে একটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান খুলেছিলেন। অভিষেককে বলেছিলেন দেশে ফিরে এসে সেই ব্যবসার হাল ধরতে। কিন্তু দাঁড়ানোর আগেই প্রচণ্ড লোকসানের মুখে পড়ে মাঠে মারা যায় ব্যবসাটি। শেষ হয়ে যায় পুঁজি।

সেই সময় বলিউড শাহেনশাহ অমিতাভ বচ্চন সাহায্য চাইতে গিয়েছিলেন প্রযোজক যশ চোপড়ার দুয়ারে। অমিতাভ বচ্চনের সেই সময়ের কথা জানিয়ে অভিষেক বচ্চন বলেন, ‘সত্য সত্যই। অস্বীকার করার কিছু নেই। আমার বাবার হাতে তখন কোনো ছবি ছিলোনা ।

এরপর অমিতাভ বচ্চন যশ চোপড়ার ছবিতে চুক্তিবদ্ধ হন। একের পর এক যশ রাজ ফিল্মস থেকে তাঁর অভিনীত ছবিগুলো তুমুল হিট করতে থাকে। সেই সময় থেকে নিজেও সিনেমায় মন দেন অভিষেক।

দ্য বিগ বুল’ ছবির পর  অভিষেক বচ্চনকে দেখা যাবে ‘বব বিশ্বাস’ ছবিতে।  এছাড়া চলছে ‘দশবি’ছবির শুটিং। আর  ৭৮ বছর বয়সে  দাঁড়িয়ে ভারতের সবচেয়ে বড় মেগাস্টার অমিতাভ বচ্চন। একের পর এক ছবি করে যাচ্ছেন তিনি।