টাঙ্গাইলে কিশোরীর গলা কাটা লাশ উদ্ধার

টাঙ্গাইলের কালিহাতী উপজেলার এলেঙ্গা পৌরসভার শামসুল হক কলেজের সামনে এক কিশোরীর গলাকাটা মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।এ সময় গলাকাটা অবস্থায় গুরুতর আহত এক কিশোরকে উদ্ধার করে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

নিহত স্কুলছাত্রীর নাম সুমাইয়া (১৫)। সে উপজেলার পালিমা গ্রামের ফেরদৌস রহমানের মেয়ে এবং এলেঙ্গা উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী। আহত মনির হোসেন (১৭) একই উপজেলার ভাবলা গ্রামের মেহের আলীর ছেলে।

স্থানীয়রা জানান, সুমাইয়া সকালে বিদ্যালয়ের পার্শ্ববর্তী প্রাইম কোচিং সেন্টারে যাওয়ার জন্য বের হয়। এ সময় তার সঙ্গে ছিল মনির নামে একজন। এ সময় দুর্বৃত্তরা তাকে শামসুল হক কলেজের সামনে নবনির্মিত বিল্ডিংয়ে নিয়ে হত্যা করে চলে যায়।

বুধবার কালিহাতী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোল্লা আজিজুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, সকাল ৮টার দিকে স্থানীয়রা গলাকাটা কিশোরী ও কিশোরকে পড়ে থাকতে দেখে পুলিশকে খবর দেয়। পরে খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে কিশোরীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়। জীবিত অবস্থায় এক কিশোরকে পাওয়া যায়।পরে তাকে উদ্ধার করে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। কিশোরের অবস্থা আশঙ্কাজনক।