টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পর সরে যাচ্ছেন শাস্ত্রীও

আসন্ন বিশ্বকাপের পর টি-টোয়েন্টি দলের অধিনায়কত্ব ছাড়ছেন ভারতের বিরাট কোহলি। বিশ্বকাপের পর ভারতের প্রধান কোচের পদ ছাড়ছেন রবি শাস্ত্রীও। এমন সিদ্ধান্ত নিজেই জানিয়েছেন শাস্ত্রী।

ভারতের সংবাদমাধ্যমকে শাস্ত্রী বলেন, ‘মনে হয়, ভারতের কোচ হিসেবে আমার সব পাওয়া হয়ে গেছে। তাই আগামী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ পর্যন্ত ভারতের কোচ হিসেবে থাকছি।’

ভারতের কোচ হিসেবে তৃপ্ত শাস্ত্রী। কোচ হিসেবে নিজের সাফল্যগুলো তুলে ধরে শাস্ত্রী বলেন, ‘পাঁচ বছর টেস্ট ক্রিকেটে এক নম্বর দল ছিলো ভারত। অস্ট্রেলিয়াতে দু’বার সিরিজ জয়। ইংল্যান্ডের লর্ডস এবং ওভালে টেস্ট জয়। আমার কাছে এগুলোই সব। আমি তৃপ্ত।’

২০১৪ সালের অগাস্টে ভারতের টিম ডিরেক্টর হিসেবে দায়িত্ব পান শাস্ত্রী। ২০১৭ সালের জুলাইয়ে দুই বছরের চুক্তিতে ভারতের কোচের দায়িত্ব নেন তিনি। ২০১৯ বিশ্বকাপের সময় সাময়িকভাবে তার মেয়াদ বাড়ানো হয় দেড় মাস। ঐ বছরের আগাস্টে আবারও দুই বছরের জন্য নতুন চুক্তি করেন তিনি। যার মেয়াদ এ বছরের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ পর্যন্ত।

শাস্ত্রীর অধিনে সাফল্য চোখে পড়ার মত হলেও, আইসিসির ইভেন্টগুলোতে ভারতের সাফল্য শুন্য। ২০১৯ ওয়ানডে বিশ্বকাপের সেমিফাইনাল থেকে বিদায় নিতে হয় ভারতকে। নিউজিল্যান্ডের কাছে হেরেছিলো তারা। আর গত জুনে আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে সেই নিউজিল্যান্ডের কাছে হারে ভারত। তবে সীমিত ওভারের ক্রিকেটে নিজের সময়কে দারুণ সফল বলেই মনে করেন শাস্ত্রী। তাই টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জয়ের স্বপ্ন তার।