টুইটার: নিয়ন্ত্রণ নিয়েই সিইও পরাগ আগরওয়ালকে বরখাস্ত করলেন মাস্ক

বিশ্বের শীর্ষ ধনী ইলন মাস্ক জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটারের নিয়ন্ত্রণ নিয়েছেন। ৪৪ বিলিয়ন ডলারে জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমটি কিনে নিলেন তিনি। প্রতিষ্ঠানটির নিয়ন্ত্রণ নেয়ার পর তিনি এর প্রধান নির্বাহী পরাগ আগরওয়ালকে বরখাস্ত করেছেন।

প্রতিষ্ঠানটির অন্যতম বিনিয়োগকারী রস গারবারের বরাত দিয়ে ব্রিটিশ গণমাধ্যম বিবিসি শুক্রবার এক প্রতিবেদনে জানায়, ইলন মাস্ক ৪৪ বিলিয়ন ডলার দিয়ে টুইটারের নিয়ন্ত্রণ নিয়েছেন।

তিনি বলেন, ‘আমার মনে হয়, আদালত মাস্ককে চুক্তি মেনে চলতে চাপ দিয়েছে। বলতে বাধা নেই যে শুরুতে এ নিয়ে বেশ জটিলতা দেখা দিয়েছিল।’

মার্কিন গণমাধ্যমের বরাত দিয়ে বিবিসির প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, টুইটারের নিয়ন্ত্রণ নেয়ার পর মাস্ক তাৎক্ষণিক এর প্রধান নির্বাহী পরাগ আগরওয়াল ও প্রধান অর্থনৈতিক কর্মকর্তা নেদ সেগালকে বরখাস্ত করেন। এরইমধ্যে সানফ্রান্সিসকোয় টুইটারের সদর দপ্তর ছেড়েছেন পরাগ।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় এক বিবৃতিতে মাস্ক জানান, তিনি টুইটার অধিগ্রহণ করছেন। ‘মানবতার স্বার্থেই’ তার এই পদক্ষেপ বলে দাবি করেন তিনি।

টুইটবার্তায় মাস্ক লিখেছেন, ‘কেন আমি টুইটার অধিগ্রহণ করলাম সে ব্যাপারে সকলকে জানাতে চাই। এটি আমি আরও অর্থ উপার্জনের জন্য কিনিনি। মানবতার জন্য কিনেছি।’

তার ভাষ্যমতে, ‘মানবতার ভবিষ্যৎ এমন হওয়া উচিত যেখানে সমস্ত পক্ষের স্বাধীন মতামত প্রকাশের একটা ডিজিটাল প্ল্যাটফর্ম থাকবে। সুস্থ পরিবেশে বিতর্ক হবে।’

মাস্ক আরও বলেছেন, ‘বর্তমানে বিপজ্জনক পরিস্থিতি রয়েছে, যেখানে সমাজমাধ্যম কট্টর দক্ষিণপন্থী ও কট্টর বামপন্থীদের কয়েকটি গোষ্ঠীতে ভাগ হতে চলেছে। যা সমাজে ঘৃণা ও বিভাজন বাড়াবে।’

এর পাশাপাশি টুইটারে বিজ্ঞাপন নীতি কী হওয়া উচিত, সে নিয়েও বার্তা দিয়েছেন মাস্ক। তার কথায়, বিজ্ঞাপন সঠিক ভাবে ব্যবহার করা হলে, তা মানুষকে অনেক তথ্য পেতে সাহায্য করবে। অপ্রাসঙ্গিক বিজ্ঞাপন ‘স্প্যাম’ বলে বর্ণনা করেছেন তিনি।

You might also like