নওশাবা আহমেদের স্থায়ীর আবেদন মঞ্জুর

নিরাপদ সড়ক আন্দোলনের সময় ফেসবুকে গুজব ছড়ানোর অভিযোগে তথ্যপ্রযুক্তি আইনের মামলায় অভিযুক্ত অভিনেত্রী নওশাবা আহমেদের জামিন স্থায়ীর আবেদন মঞ্জুর করেছেন আদালত।

মঙ্গলবার (১৫ জানুয়ারি) মামলাটি তদন্ত প্রতিবেদন ও আসামির হাজিরার দিন ধার্য ছিল। নওশাবার আইনজীবী ইমরুল কাওসার হাজিরাসহ জামিন স্থায়ী করার আবেদন দাখিল করেন। পরে ঢাকা মহানগর হাকিম মোহাম্মদ দিদার হোসেন আবেদনটি মঞ্জুর করেন। একই সাথে মামলার তদন্ত প্রতিবেদনের জন্য আগামী ৩ মার্চ দিন ধার্য করেন।

এর আগে গত ২১ আগস্ট ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতের বিচারক দেবব্রত বিশ্বাস নওশবার অস্থায়ী জামিনের আদেশ দেন।

গত ২০ আগস্ট মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের সাইবার সিকিউরিটি অ্যান্ড ক্রাইম বিভাগের পুলিশ পরিদর্শক রফিকুল ইসলাম নওশাবার চিকিৎসা শেষে তাকে ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতে হাজির করেন। তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত তাকে কারাগারে রাখার আবেদন জানান এই পুলিশ কর্মকর্তা। পরে ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতের বিচারক মাহমুদা আক্তার শুনানি শেষে কারাগারে রাখার আদেশ দেন।

মামলার এজাহারে বলা হয়, ২০১৮ সালের ৪ আগস্ট শিক্ষার্থীদের আন্দোলন চলাকালে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে গুজব ছড়ান অভিনেত্রী নওশাবা আহমেদ। ফেসবুক থেকে তিনি লাইভে বলেন, ‘জিগাতলায় আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা করা হয়েছে। একজনের চোখ উঠিয়ে ফেলেছে এবং চার জনকে মেরে ফেলেছে।’ তার এই উসকানিমূলক বক্তব্যের কারণে র‌্যাব-১ এর ডিএডি মো. আমিনুল ইসলাম উত্তরার পশ্চিম থানায় বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেন।

নিউজ ডেস্ক / বিজয় টিভি

You might also like