নারীকে মারধরে করে ৭ লাখ টাকা লুট

ঠাকুরগাঁওয়ে বাড়িতে জোরপূর্বক ঢুকে গৃহকর্ত্রীকে মারধর করে সাড়ে ৭ লাখ টাকা লুট করেছে সন্ত্রাসীরা। এ সময় ওই নারীর ব্যবসায়ী স্বামীকেও মারধর করে তারা।

বৃহস্পতিবার (১৪ এপ্রিল) রাতে ঠাকুরগাঁও পৌর শহরের হাজী পাড়ায় এ ঘটনা ঘটে।

ভুক্তভোগী নারী লায়লা বেগম সূচনা জানান, তারাবি শেষে তারাঘুমের প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন। এ সময় তাদের বাড়ির দোতালায় দরজার কড়া নাড়েন কেউ। দরজা খুলতেই হাতে থাকা দেশীয় অস্ত্র, রোড দিয়ে অতর্কিত ভাবে হামলা চালায়। এরপর স্বামী-স্ত্রীকে মারপিট করে বাড়ির জিনিসপত্র ভাঙচুর করে ড্রয়ার থেকে জমি বিক্রি করা সাড়ে ৭ লাখ টাকা লুট করে নিয়ে যায় সন্ত্রাসীরা। তিনি বর্তমানে আধুনিক সদর হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন।

ওই নারীর স্বামী ইসরাফিল হোসেন বলেন, পূর্ব পরিকল্পিত ভাবে স্থানীয় সন্ত্রাসী ওহিদুল ও বাকীর নেতৃত্বে একটি সন্ত্রাসী গ্রুপ হামলা ও নগদ সাড়ে ৭ লাখ টাকা লুট করে নিয়ে গেছে। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছেন।

ছেলে স্কুলছাত্র অর্ফি বলেন, মা-বাবার উপর হামলার কথা শোনার পর আমি বাড়িতে আসি। এসেই ৯৯৯ এ কল করি। পুলিশ এসে আমাদের সাহস যুগিয়েছেন। আশা করি সন্ত্রাসীরা গ্রেপ্তার হবে।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত বাকীর সঙ্গে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি ওই বাড়িতে যাওয়ার কথা স্বীকার করলেও হামলা ও লুটপাটের বিষয়টি অস্বীকার করেন।

ঠাকুরগাঁও সদর থানার এ এসআই নবিউল ইসলাম বলেন, ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। পুলিশ অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত স্বাপেক্ষে ব্যবস্থা নেবে।

You might also like
%d bloggers like this: