নেপালের সঙ্গে বাণিজ্য বাড়ায় পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর সন্তোষ

সাম্প্রতিক সময়ে নেপালের সঙ্গে বাণিজ্য বাড়ায় সন্তোষ প্রকাশ করেছেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলম। একই সঙ্গে তিনি বাণিজ্য সম্ভবনা বৃদ্ধির লক্ষে দু’দেশের মধ্যে অগ্রাধিকারমূলক বাণিজ্য চুক্তি (পিটিএ) সম্পন্ন করার আহ্বান জানিয়েছেন।

শুক্রবার বাংলাদেশ-নেপালের কূটনৈতিক সম্পর্কের সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে ঢাকাস্থ নেপাল দূতাবাসের আয়োজনে এক অনুষ্ঠানে প্রতিমন্ত্রী এ আহ্বান জানান।

অনুষ্ঠানে প্রতিমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূরদর্শী নেতৃত্বে বাংলাদেশ সরকার প্রতিবেশীদের সঙ্গে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্কের নীতি বজায় রেখেছে। আমরা আনন্দের সাথে গত ৫০ বছরের সম্পর্কের দিকে ফিরে তাকালে দেখতে পাই, এই অংশীদারিত্ব অব্যাহত রাখতে এবং আগামী বছরগুলোতে দু’দেশের সম্পর্ক নতুন উচ্চতায় নিয়ে যেতে আমরা প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।

এলডিসি উত্তরণের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় দু’দেশ একসঙ্গে কাজ করতে পারে বলে মনে করেন শাহরিয়ার আলম। তিনি বলেন, সার্ক ও বিমসটেকের সদর দপ্তর কাঠমান্ডু ও ঢাকায় হওয়ায় এ অঞ্চলে শান্তি ও সমৃদ্ধি অর্জনে আমাদের অবদান রাখতে হবে।

একই দিন নেপালের বাংলাদেশ দূতাবাস সম্পর্কের সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে কাঠমান্ডুতে এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। অনুষ্ঠানে নেপালের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. নারায়ণ খাড়কা বাংলাদেশ ও নেপালের মধ্যে বন্ধুত্বের ঐতিহাসিক বন্ধনের স্মৃতিচারণ করেন।

তিনি বলেন, বাংলাদেশ ও নেপাল উষ্ণ ও বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ককে আরও সুসংহত করতে একে অপরের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে অবদান রাখতে সক্ষম হবে।

You might also like
%d bloggers like this: