নোয়াখালীতে ছোট ভাইকে হত্যা, আটক ৩

৮৯

নোয়াখালীর সোনাইমুড়ীতে পারিবারিক কলহ ও সম্পত্তি নিয়ে বিরোধের জের ধরে ছোট ভাই মো.ইলিয়াছকে (৩০) পিটিয়ে এবং ছুরিকাঘাতে হত্যা করেছে আপন বড় ভাইয়েরা।

শুক্রবার দুপুর ৩টার দিকে উপজেলার জয়াগ ইউনিয়নের ২নম্বর ওয়ার্ডের ভাওরকোট গ্রামের ফকির বাড়িতে এই ঘটনা ঘটে।

নিহত মো.ইলিয়াছ (৩০) উপজেরার জয়াগ ইউনিয়নের ২নম্বর ওয়ার্ডের ভাওরকোট গ্রামের ফকির বাড়ির মৃত নুর ইসলামের ছেলে। এ ঘটনায় পুলিশ তাৎক্ষণিক ঘাতক বড় দুই ভাই শাহ আলম, সারোয়ার ও ভাতিজা শুভকে আটক করে।

জয়াগ ইউনিয়নের চেয়াম্যান শওকত আকবর বলেন, নিহত ইলিয়াছ চট্রগামে ব্যবসা করত। তাদের সংসারে তারা ৪ ভাই ও এক সৎ বোন এবং সৎমা রয়েছে। ইলিয়াছ তার সৎ মায়ের ভরণ পোষণ বহন করত। দীর্ঘ দিন থেকে তাদের মধ্যে পারিবারিক কলহ ও সম্পত্তি নিয়ে বিরোধ চলছিল।

নিহত ইলিয়াছের বড় ভাই শাহ আলম (৪৫) ও সরোয়ার (৪০) এবং দুই ভাইয়ের পরিবারের সদস্যরা সৎ মায়ের সাথে কারণে অকারণে খুব খারাপ ব্যবহার করত। গতকাল ইলিয়াছ চট্রগ্রাম থেকে বাড়িতে আসে। শুক্রবার জুমার নামাজের পর পারিবারিক বিভিন্ন বিষয় নিয়ে বড় ভাই শাহ আলম ও সরোয়ারের সাথে তার বাকবিতন্ডা হয়। এক পর্যায়ে উত্তেজিত হয়ে শাহ আলম ও সরোয়ারের নেতৃত্বে তার পরিবারের সদস্যরা ইলিয়াছের ওপর হামলা চালায়। এ সময় তারা ইলিয়াছকে পিটিয়ে দেশীয় অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে গুরুত্বর আহত করে। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে সোনাইমুড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে।

সোনাইমুড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুহাম্মদ গিয়াস উদ্দিন সত্যতা নিশ্চিত করেন। তিনি আরও জানান, এ ঘটনায় পুলিশ তাৎক্ষণিক অভিযান চালিয়ে তিনজনকে আটক করেছে। খবর পেয়ে পুলিশ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করবে। পরবর্তীতে এই ঘটনায় আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

You might also like