পিরোজপুরে বাবুই পাখির ছানা হত্যা, তিনজনকে কারাদন্ড

৩২

পিরোজপুরের ইন্দুরকানীতে ধান নষ্ট করতে পারে এমন আশংকায় শতাধিক বাসা ভেঙে পাখি ও ছানা মেরে ফেলার দায়ে তিন কৃষক কে ভ্রাম্যমান আদালতে মাধ্যমে কারাদন্ড দেয়া হয়েছে। সোমবার বিকালে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট অশোক বিক্রম চাকমা আদালতে মাধ্যমে লুৎফর মোল্লা, কে ১৫ দিন, সুনিল বেপারী কে ৭ দিন এবং সুনিল মিস্ত্রীকে ৩ দিনের কারাদন্ড দেন। কারাদন্ড প্রাপ্ত আসামীদের সকলের বাড়ি ইন্দুরকানী উপজেলা ভবানীপুর গ্রামে।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট অশোক বিক্রম চাকমা জানান, উদঘটিত ঘটনার পরিপেক্ষিতে বন্য প্রাণী সংরক্ষণ ও নিরাপত্তা আইন ২০১২ এর ৩৮ ধারা মতে নির্বিচারে বন্য প্রাণী হত্যার দায়ে বিভিন্ন মেয়াদে তিন জনকে ভ্রাম্যমান আদালতে কারাদন্ড দেয়া হয়েছে।

ইন্দুরকানী থানার ওসি হুমায়ুন কবির জানান, বন্য প্রাণী সংরক্ষণ আইনে এ দন্ড ৩ জনকে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদন্ড দেয়া হয়েছে এবং দন্ড প্রাপ্তদের জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, শনিবার বিকেলে লুৎফর মোল্লা ও তার লোকজন নিয়ে ভবানীপুর গ্রামে ক্ষেতের ধান নষ্ট করতে পারে এমন আশংকায় জমির পাশে থাকা দুটি তালগাছ থেকে প্রায় দুই শতাধিক বাবুই পাখির বাসা ভেঙে পাখির ছানাগুলো মেরে ফেলে। বাসাগুলোতে থাকা অনেক পাখির ছানা ও ডিম রাস্তার পাশে, ডোবা, খাল ও ঝোপে ঝাড়ের মধ্যে পাখির ছানা গুলোকে ছড়িয়ে ছিটিয়ে ফেলে দেয়।