পুলিশের কাছে ন্যায়বিচার পাবে, মানুষের এই আত্মবিশ্বাস যেন থাকে: প্রধানমন্ত্রী

১৭

জনগণের পাশে দাঁড়িয়ে, পাশে থেকে জনগণের কল্যাণে কাজ করে যেতে বাংলাদেশ পুলিশের প্রতিটি সদস্যকে নির্দেশ দিয়েছেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। পুলিশের কাছে গেলে যে ন্যায়বিচার বা ন্যায্যতা পাবে, সেই আত্মবিশ্বাসটা মানুষের মাঝে যেন সবসময় থাকে, পুলিশকে সেভাবেই সেবা দিয়ে যেতে হবে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

রোববার জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে বাংলাদেশ পুলিশের উদ্যোগে ‘দেশের ৬৫৯টি থানায় নারী, শিশু, বয়স্ক ও প্রতিবন্ধীদের সেবায় স্থাপিত সার্ভিস ডেস্কের উদ্বোধন এবং গৃহহীনদের জন্য নির্মিত গৃহ হস্তান্তর’ অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন তিনি। রাজারবাগের ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ লাইন্সে অনুষ্ঠিত এ অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী তার সরকারি বাসভবন গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি যুক্ত হন।

সরকারপ্রধান বলেন, ‘আমি মনে করি, বাংলাদেশের পুলিশ জনগণের সেবক হবে, জনগণের আস্থা, বিশ্বাস অর্জন করবে। পুলিশের কাছে গেলে যে ন্যায়বিচার পাবে বা ন্যায্যতা পাবে, সেই আত্মবিশ্বাসটা মানুষের মাঝে যেন সবসময় থাকে। পুলিশকে সেভাবেই সেবা দিয়ে যেতে হবে। কারণ যেকোনো বাহিনী হোক আর যেকোন ব্যক্তি হোক, তার জীবনের সফলতা তখনই আসে, যখন তার ওপর অর্পিত দায়িত্ব সে যথাযথভাবে পালন করে মানুষের আস্থা, বিশ্বাস এবং ভালোবাসা অর্জন করতে পারে। এটাই হচ্ছে সব থেকে বড় কথা।’

‘এই পুলিশকে জনগণের পুলিশ হতে হবে’- জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের এই ঐতিহাসিক বার্তাটার কথা পুলিশ সদস্যদের স্মরণ করিয়ে দেন তার কন্যা।

%d bloggers like this: