পৌর মেয়রের গোডাউন থেকে সয়াবিন তেল জব্দ, জরিমানা

নাটোরের বড়াইগ্রাম পৌরসভার মেয়র মাজেদুল বারী নয়নের মালিকানাধীন নয়ন ডিপার্টমেন্টাল স্টোরের গোডাউনসহ ছয়টি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে অভিযান চালিয়ে ৫ হাজার ৩৫৯ লিটার সয়াবিন তেল জব্দ করেছে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর ও র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ান (র‌্যাব-৫)। একই সঙ্গে ভ্রাম্যমাণ আদালতে অভিযুক্ত ব্যবসায়ীদের ১ লাখ ৯৮ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

বৃহস্পতিবার (১২ মে) সকালে র‌্যাবের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। এরআগে, বুধবার (১১ মে) বিকেল থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত নাটোর শহরের কুন্ডু সাহা স্টোর, সোনালী স্টোর, লিটন স্টোর ও নিউ বেঙ্গল ট্রেডার্স এবং বড়াইগ্রাম উপজেলার মৌখড়া বাজারের নয়ন ডিপার্টমেন্টাল স্টোর ও আল মামুন স্টোরে যৌথ অভিযান চালায় র‌্যাব ও ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জেলা শহর নাটোরসহ বড়াইগ্রাম উপজেলায় কতিপয় ব্যবসায়ী আগের দামে ক্রয়কৃত ভোজ্য তেল সয়াবিন অবৈধভাবে মজুদ রেখে বেশি দামে বিক্রি করছেন। এমন তথ্যের ভিত্তিতে বুধবার বিকেল থেকে র‌্যাব ও ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর যৌথভাবে অভিযানে নামেন এবং রাত পর্যন্ত এই অভিযান পরিচালনা করা হয়।

অভিযানে বড়াইগ্রাম উপজেলার মৌখাড়া বাজারস্থ মের্সাস নয়ন ডির্পাটমেন্টাল স্টোর থেকে ৩ হাজার লিটার সয়াবিন তেল জব্দ করে ওই ব্যবসায়ীকে ১ লাখ টাকা জরিমানা এবং আল মামুন স্টোর থেকে ০৯ লিটার সয়াবিন তেল জব্দ ও ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

অপরদিকে, নাটোর শহরের নিচা বাজার এলাকায় অভিযান কুন্ডু সাহা স্টোর থেকে ১০ লিটার সয়াবিন তেল জব্দ ও ৮ হাজার টাকা জরিমানা, সোনালী স্টোর থেকে ৮৫ লিটার সয়াবিন তেল জব্দ ও ২০ হাজার টাকা জরিমানা, মের্সাস লিটন স্টোর থেকে ৫৫ লিটার সয়াবিন তেল জব্দ ও ১০ হাজার টাকা জরিমানা এবং স্টেশন বাজারস্থ নিউ বেঙ্গল ট্রেডার্সের গুদাম ও দোকান থেকে ২ হাজার ২০০ লিটার সয়াবিন তেল জব্দ ও ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

পরে এসব ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও গোডাউন থেকে জব্দ করা সয়াবিন তেল সরকার নির্ধারিত মূল্যে প্রকাশ্যে ভোক্তাদের মধ্যে বিক্রি করা হয়। অভিযানে নাটোর ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক মেহেদী হাসান তানভীর ও নাটোর র‌্যাব ক্যাম্পের কমান্ডার ফরহাদ হোসেনসহ র‌্যাব সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

You might also like