প্রতিবন্ধী শিশুদের সমাজের মূলধারায় অন্তর্ভুক্ত করার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

সাধারণ ছেলে মেয়েদের সঙ্গে প্রতিবন্ধী শিশুদের একই স্কুলে পড়াশুনার পরিবেশ তৈরি করা গেলে সেই শিশুদের সুস্থ্য হয়ে ওঠার সম্ভাবনা অনেক বেড়ে যায় উল্লেখ করে এ বিষয়ে সবাইকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

শনিবার ১৫তম ‘বিশ্ব অটিজম সচেতনতা দিবস’ উপলক্ষে দেয়া এক বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

এসময় সরকার প্রধান বলেন, যেসমস্ত শিশুদের মধ্যে অসুস্থতা একটু কম রয়েছে তাদের সাধারণ স্কুলের ছেলে মেয়েদের সাথেই যদি একসাথে বড় করা যায় তাহলে সবার সাথে থেকে তারা নিজে থেকেই অনেকটা সুস্থ্য হয়ে উঠবে এবং তারা সুস্থ্য হয়ে যায়। কারণ তারা একে অপরের সঙ্গে বিভিন্ন বিষয় শেয়ার করতে পারে।

তিনি আরও বলেন, ঝগড়া, বন্ধুত্ব বা মারামারি যাই করুক এর মধ্য দিয়েই কিন্তু তাদের মধ্যে আত্মবিশ্বাস গড়ে ওঠে। কাজেই আমি মনে করি পারিবারিকভাবে যদি তাদের স্বাভাবিক শিশুদের সঙ্গে মেশার সুযোগ তৈরি করা হয় তাহলে তাদের জন্যই সেটা ভালো। শুধুমাত্র আলাদাভাবে ব্যবস্থা করলেই চলবেনা।

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের মাঝেও অনেক সুপ্ত প্রতিভা থাকে। সেই প্রতিভাগুলো বিকশিত করার সুযোগ করে দিতে হবে; যাতে করে তারা সমাজের কাজে আসে, জীবনকে সুন্দর করতে পারে। কেউ যেন তাদের বাবা-মার জন্য বোঝা মনে না করে। একই সাথে বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন এসব ব্যক্তিদের সঠিক পরিচর্যা এবং সমাজে নিজেদের সুপ্রতিষ্ঠিত করার সুযোগ তৈরির দিকে আমাদের খেয়াল রাখতে হবে।

সরকার প্রধান আরও বলেন, বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন ব্যক্তিদের জন্য আটটি বিভাগীয় শহরে আবাসন ও কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করবে সরকার। এসময় সমাজের বিত্তশালীদের এগিয়ে আসারও আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী।

অটিজম আক্রান্ত শিশুর দেখভাল, শিক্ষা ও চিকিৎসার জন্য মা-বাবা, শিক্ষক ও সেবকদের বিশেষ প্রশিক্ষণের বন্দোবস্ত করার কথাও জানিয়েছেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী।

You might also like
%d bloggers like this: