ফরিদপুরের উপ-নির্বাচনে ভোট সুষ্ঠু হ‌চ্ছে : সিইসি

প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী হাবিবুল আউয়াল বলেছেন, ফরিদপুর-২ উপ-নির্বাচনের পরিবেশ শান্তিপূর্ণ। আমরা সন্তুষ্ট।

শনিবার (৫ নভেম্বর) নির্বাচন ভবন থেকে সিসি ক্যামেরায় ভোট পর্যবেক্ষণ করে এমন মন্তব্য করেন তিনি।

কাজী হাবিবুল আউয়াল বলেন, খুবই পিসফুল পরিবেশে নির্বাচন হচ্ছে। ভোটার উপস্থিতি কেমন বলতে পারবো না। তবে খুব বেশি ভিড় পরিলক্ষিত হয়নি। যেটা আমাদের প্রত্যাশা ছিল যে নির্বাচনটা শান্তিপূর্ণভাবে হবে, কোনো অনিয়ম হবে না, সেদিক থেকে আমরা সন্তুষ্ট। আমরা নির্বাচন পর্যবেক্ষণ করছি, এক হাজার ৫২টি ক্যামেরা বসানো আছে।

তিনি আরও বলেন, আমরা যা দেখছি, ভালো দেখছি। আমরা যে ফ্যাক্টগুলো দেখছি, তাই আপনাদের (গণমাধ্যম) মাধ্যমে তুলে ধরছি জনগণের সামনে। এতে জনগণের সঙ্গে যে সংযোগটা হচ্ছে এতে এক ধরনের আস্থা জনগণের মধ্যে তৈরি হচ্ছে। সিসি ক্যামেরার একটা ইতিবাচক দিক আছে, প্রার্থীরাও এটা বলছেন। আমি বলবো যে নতুন একটি সংযোজন নিয়ন্ত্রণ এবং ইলেকশন গভর্ন্যান্সকে প্রতিষ্ঠা করছে।

ফরিদপুর-২ আসনের উপ-নির্বাচনের ভোটগ্রহণ সকাল ৮টায় শুরু হয়েছে। চলবে বিকেল ৪টা পর্যন্ত। ভোটে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন নৌকা প্রতীক নিয়ে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রার্থী শাহদাব আকবর ও বটগাছ প্রতীক নিয়ে বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলনের প্রার্থী মো. জয়নুল আবেদীন বকুল মিয়া।

নগরকান্দা, সালথা ও সদরপুর উপজেলা নিয়ে আসনটি গঠিত। এতে তিন লাখ ১৮ হাজার ৪৭৯ জন ভোটার ১২৩টি কেন্দ্রের ৮০৬টি ভোটকক্ষে তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগের সুযোগ পাচ্ছেন।

প্রয়াত সংসদ উপনেতা সৈয়দা সাজেদা চৌধুরীর মৃত্যুতে গত ১১ সেপ্টেম্বর সংসদীয় এ আসনটি শূন্য ঘোষণা করা হয়। ২৬ সেপ্টেম্বর তফসিল ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন।

You might also like