ফুটবলে প্রথমবার সাদা কার্ড দেখল বিশ্ব!

সময়ের বিবর্তনে ফুটবল খেলায় এসেছে নানা পরিবর্তন। আইন-কানুন থেকে শুরু করে অত্যাধুনিক প্রযুক্তির ব্যবহারে এসেছে নতুন মাত্রা। সদ্য শেষ হওয়া কাতার বিশ্বকাপই তার দারুন উদাহরণ। তবে এবার ফুটবল বিশ্ব দেখল অন্যরকম এক নিয়ম। যা দেখে প্রথমে বিস্মৃত হওয়ার পর স্বাগতম জানিয়েছেন দর্শকরা।

সাধারনত ফুটবল খেলায় কার্ড দেখানো হয় অপরাধের জন্য। এতদিন খেলোয়াড়রা লঘু দন্ডের জন্য হলুদ কার্ড এবং গুরু দন্ডের জন্য লাল কার্ড দেখে এসেছেন। তবে এবার দেখানো হলো সাদা কার্ড! যা দেখে বেশ অবাক দর্শক এবং খেলোয়াড়রা।

গত রোববার পর্তুগালে উইমেন’স কাপে স্পোটিং লিসবন ও বেনফিকার মধ্যকার ম্যাচে ঘটে এ ঘটনা। ম্যাচ চলাকালীন সময়, বিরতির খানিক আগে ডাগআউটে একজন খেলোয়াড় অসুস্থ হয়ে পড়েন। তখন দুই দলের মেডিকেল স্টাফরা তার চিকিৎসা করেন। তখনই তাদের উদ্দেশ্যে সাদা কার্ড দেখান রেফারি কাতারিনা কাম্পোস।

স্টেডিয়ামে উপস্থিত দর্শকরা প্রথমে বুঝতে না পারলেও পরে বিষয়টিকে স্বাগত জানায়। এসময় তুমুল করতালি দিয়ে রেফারিকে অভিনন্দন জানান তারা।

এর আগে উয়েফা সভাপতি মিশেল প্লাতিনি প্রস্তাব দিয়েছিলেন সাদা কার্ড প্রবর্তনের৷ রেফারির সিদ্ধান্তে কোনো খেলোয়াড় ভিন্নমত দেখালে তার শাস্তি হিসেবে এটি দেখানোর আহ্বান জানিয়েছিলেন তিনি, যাতে দোষী খেলোয়াড়দের ১০ মিনিটের জন্য মাঠের বাইরে রাখা হয়। তবে তখন সে প্রস্তাব গ্রহন করেনি ফিফা। পরবর্তিতে শান্তির রঙ হিসাবে ফিফা বেছে নিয়েছে সাদা কার্ড। মাঠের লড়াইয়ের বাইরে পারস্পরিক সৌজন্যের জন্য সাদা কার্ড ব্যবহার করে ইতিহাস রচনা করেছেন এই নারী রেফারী।