ফের বাগদাদে মার্কিন দূতাবাসের কাছে ২ দফা রকেট হামলা

ইরাকের রাজধানী বাগদাদে অবস্থিত যুক্তরাষ্ট্রের দূতাবাস লক্ষ্য করে রকেট হামলা হয়েছে। বার্তা সংস্থা এএফপির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার সকালে ওই হামলার ঘটনা ঘটে।

ইরাকি প্রধানমন্ত্রী মুস্তফা আল কাধিমি যুক্তরাষ্ট্রে সফর শেষে দেশে ফেরার পরই এই হামলার ঘটনা ঘটল। গত সোমবার হোয়াইট হাউসে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের সঙ্গে বৈঠক করেন ইরাকের প্রধানমন্ত্রী মুস্তফা আল কাধিমি। বাইডেন ক্ষমতা গ্রহণের পর ওয়াশিংটনে এটাই প্রথম সফর ছিল ইরাকি প্রধানমন্ত্রীর। তার এই সফরের প্রধান গুরুত্বপূর্ণ বিষয় ছিল ইরাক থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহারে যুক্তরাষ্ট্রকে চাপ দেয়া। এতে তিনি সফল হয়েছেন।

কাধিমি এবং মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের বৈঠকের পর মার্কিন প্রেসিডেন্ট বলেছেন, চলতি বছরের শেষ নাগাদ ইরাকে মার্কিন বাহিনী তাদের যুদ্ধের মিশন শেষ করবে। এ বিষয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে একটি চুক্তিও স্বাক্ষর হয়েছে।

ইরাকে বর্তমানে ২ হাজার ৫শ মার্কিন সেনা মোতায়েন রয়েছে, যারা ইসলামিক স্টেটের অবশিষ্ট সদস্যদের বিরুদ্ধে যুদ্ধে স্থানীয় সেনাদের সহায়তায় করে আসছে।

গত বছর ইরাকের রাজধানী বাগদাদে ইরানের শীর্ষ জেনারেল কাশেম সোলেইমানি মার্কিন ড্রোন হামলায় নিহত হওয়ার পর ইরাকে মার্কিন বাহিনীর অবস্থান একটি গুরুত্বপূর্ণ ইস্যুতে পরিণত হয়। এর পর থেকে মার্কিন অবস্থান লক্ষ্য করে হামলার ঘটনা ঘটছে। এসব হামলার জন্য ইরানপন্থি বিভিন্ন সংগঠনকে দায়ী করা হচ্ছে।

এদিকে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বলেন, চলতি বছরের শেষ নাগাদ আমরা আমাদের যুদ্ধের মিশন শেষ করতে যাচ্ছি। ইরাকি বাহিনীকে আত্মরক্ষার কাজে প্রশিক্ষণ, সহায়তা এবং আইএসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে সাহায্য অব্যাহত থাকবে বলে জানানো হয়েছে।