বগুড়ায় জুয়া খেলা নিয়ে বিরোধে সন্ত্রাসীকে কুপিয়ে হত্যা!

বগুড়ার ধুনটে জুয়া খেলা নিয়ে বিরোধের জেরে আরিফুল ইসলাম হিটলু (৩৮) নামের এক সন্ত্রাসীকে কুপিয়ে হত্যার পর গ্রামবাসী মরদেহ গুম করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গিয়েছে।

শনিবার (১৬ এপ্রিল) রাত ১০ টার দিকে ধুনট উপজেলার নিমগাছী ইউনিয়নের বেড়েরবাড়ি গ্রামে হত্যাকাণ্ডটি ঘটে। নিহত হিটলু বেড়েরবাড়ি গ্রামের আব্দুল জলিলের ছেলে। তার নামে ধুনট থানায় ৮টি মামলা রয়েছে।

এলাকাবাসী জানান, বেড়েরবাড়ি গ্রামটি শাজাহানপুর উপজেলার আমরুল ইউনিয়ন লাগোয়া। আমরুল ইউনিয়নের নাগরকান্দি খালের ব্রীজের কাছে প্রায় এক মাস ধরে জুয়ার আসর চালিয়ে আসছিল হিটলু।

জুয়া খেলা নিয়ে বিরোধের জের ধরে শনিবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে বেড়েরবাড়ি গ্রামের মালেক নামের এক যুবককে কুপিয়ে আহত করে হিটলু। এ খবর গ্রামের পৌঁছলে বেড়েরবাড়ি গ্রামের শতাধিক লোক জুয়ার আসরে হামলা চালিয়ে হিটলুকে ধরে নিয়ে যায়। এরপর বেড়েরবাড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় সংলগ্ন এলাকায় ধারালো অস্ত্র দিয়ে উপর্যুপরি কুপিয়ে হত্যা করে তাকে। সেখান থেকে মরদেহ অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে ফেলে দেয় গ্রামবাসী।

খবর পেয়ে রাত সাড়ে ১০ টার দিকে ধুনট থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে এলাকাবাসীর সহযোগিতায় মরদেহ সন্ধান শুরু করে। রাত ১টায় এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত মরদেহের সন্ধান পাওয়া যায়নি।

ধুনট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কৃপা সিন্ধু বালা জানান, হিটলুর পরিবার পুলিশকে নিশ্চিত করেছে যে হিটলু বেঁচে নেই। ঘটনাস্থলে রক্ত পড়ে থাকা দেখে মনে হয়েছে ধারালো অস্ত্র দিয়ে তাকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়। তার লাশের সন্ধান চালানো হচ্ছে বলেও জানান তিনি।

%d bloggers like this: