বাংলাদেশ জাতীয় চিড়িয়াখানা

রাজধানীতে হাতেগোনা বিনোদন কেন্দ্রের মধ্যে অন্যতম মিরপুরস্থ জাতীয় চিড়িয়াখানা। শুধু শিশুদের নয় সব বয়সী মানুষের জনপ্রিয় বিনোদন কেন্দ্র এটি। প্রতিদিনই এসব স্থানে ভিড় জমায় বিনোদনপ্রেমীরা। তবে বরাবরের মতেই এ বিনোদন কেন্দ্রের প্রথম সারির দর্শক স্থান দখল করে রেখেছে শিশুরা।তবে সেবার মান নিয়ে অসন্তোষ দর্শনার্থীরা।

মিরপুরের জাতীয় চিড়িয়াখানা, এটি সব বয়সী মানুষের জনপ্রিয় বিনোদন কেন্দ্র হলেও শিশুরাই এর প্রথম সারির র্দর্শক। আর সাপ্তাহিক ছুটির দিনে দর্শনার্থীদের সংখ্যা হয়ে যায় দ্বিগুন।

তবে চিড়িয়াখানাকে ঘিরে সাধারণ দর্শনার্থীদের আশা-আকাংখা কি আদৌ পূরণ করতে পেরেছে কর্তৃপক্ষ। চিড়িয়াখানার ভেতর হকার প্রবেশের নিষেধাজ্ঞা থাকলেও একটু ঘুরলেই চোখেঁ পড়বে তাদের।

তবে এসব অভিযোগ অস্বীকার করে প্রতিষ্ঠানটির ডেপুটি কিউরেটর ডাঃ নুরুল ইসলাম বলেন,দর্শনার্থীদের সেবা দিতে বদ্ধ পরিকর তারা।

চিড়িয়াখানায় মাংসাশী ৯ প্রজাতির প্রাণী ৩৬টি, তৃণভোজী ২৮ প্রজাতির ২৬১টি, ক্ষুদ্র স্তন্যপায়ী ও সরিসৃপ ২৮ প্রজাতির ২৫৭টি, পাখি ৫৭ প্রজাতির ১ হাজার ১৫৮টি এবং অ্যাকুরিয়াম ফিশ রয়েছে ২৫ প্রজাতির ৯৩৯টি। তবে সম্প্রতি চিড়িয়াখানার আয় বাড়াতে প্রবেশ মূল্য বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত নেয়ার কথা রয়েছে।

নিউজ ডেস্ক / বিজয় টিভি

You might also like