বাগেরহাটে স্ত্রীকে বিয়ে করায় বন্ধুর হাতে বন্ধু খুন!

৩৭

বাগেরহাটের মোংলা উপজেলায় স্ত্রীকে বিয়ে করা নিয়ে শত্রুতার জেরে বন্ধুর হাতে বন্ধু খুনের ঘটনা ঘটেছে।

সোমবার (২৮ মার্চ) রাত ৮টার দিকে মোংলা বন্দর পৌরসভার ৮ নম্বর ওয়ার্ডের ছাড়াবাড়ি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

খবর শুনে মোংলা সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আসিফ ইকবালসহ মোংলা থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।

নিহত শাহীন (৩৫) ছাড়াবাড়ি এলাকার মো. একরামুল হকের ছেলে। তিনি মোংলা বন্দর এলাকায় জাহাজের শ্রমিক হিসেবে কাজ করতেন। হত্যার অভিযোগে অভিযুক্ত শাহিনের বন্ধু মারুফ খুলনা জেলার কয়রা উপজেলার মো. আব্দুর রশিদের ছেলে। তিনিও পৌর শহরের ছাড়াবাড়ি এলাকায় ভাড়া থাকতেন।

শাহিনের বড় বোন খাদিজা বেগম বলেন, আমার ভাই শাহিন দেড় বছর আগে মারুফের তালাকপ্রাপ্তা স্ত্রী নাদিরাকে বিয়ে করে। এরপর থেকেই বিভিন্ন সময় আমার ভাইকে হুমকি-ধামকি দিয়ে আসছিল মারুফ। সেই বিরোধের জেরে আমার ভাইকে মারুফ খুন করেছে। আমি আমার ভাই হত্যার বিচার চাই।

মোংলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক ডা. সিরাজুল ইসলাম বলেন, হাসপাতালে আনার আগে পথেই শাহীনের মৃত্যু হয়েছে। শাহিনের পেটে বড় ধরনের ইনজুরি থাকায় অতিরিক্ত রক্তক্ষরণের কারণে তার মৃত্যু হয়েছে।

নিহতের পরিবারের সদস্যদের বরাত দিয়ে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আসিফ ইকবাল বলেন, মারুফ নামে এক কাঠমিস্ত্রীর সঙ্গে শাহীনের বন্ধুত্ব ছিল। যাওয়া আসার সুযোগে বন্ধুর স্ত্রীকে ফুসলিয়ে বিয়ে করেন শাহিন। এরপর থেকে শুরু হয় দুই বন্ধুর শত্রুতা। এ ঘটনার জেরেই এ খুনের ঘটনাঘটেছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। ঘটনায় আইনি প্রক্রিয়াসহ মারুফকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

You might also like
%d bloggers like this: