বিএসএফের গুলিতে আহত এক ভারতীয় কিশোরকে উদ্ধার করেছে পুলিশ

৫৭

কুড়িগ্রামে এবার ভারতীয় এক কিশোরকে গুলি করল বিএসএফের টহলদল। আহত কিশোর মিলন মিয়া (১৮) রবিবার ভোররাত ৩টা দিকে অবৈধভাবে সীমান্ত পেরিয়ে বাংলাদেশে তার নানার বাড়ীতে বেড়াতে আসার সময় গুলিবিদ্ধের ঘটনা ঘটে। গুরুতর আহত কিশোর জেলার নাগেশ্বরী উপজেলার ভিতরবন্দ ইউনিয়নের দোয়ালিপাড়ায় নানা মকবুল হোসেনের বাড়ীতে আশ্রয় নেয়। সেখানেই গোপনে তার চিকিৎসা চলছিল।

খবর পেয়ে নাগেশ্বরী থানার অফিসার ইনচার্জ রওশন কবিরসহ একদল পুলিশ অভিযান চালিয়ে গুলিবিদ্ধ যুবককে মকবুল হোসেনের বাড়ীর পাশে কবরস্থান সংলগ্ন একটি গর্তের ভিতর থেকে উদ্ধার করে রাতেই পুলিশ প্রহরায় কুড়িগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করে।

আহত যুবক মিলন মিয়া ভারতের কুচবিহার জেলার সাহেবগঞ্জ থানার চৌধুরীরহাট শাহিদালের কুঠি গ্রামের জগু আলমের পূত্র।

আহত যুবক মিলন মিয়া জানায়, রাত ৩টার দিকে জেলার ফুলবাড়ী উপজেলার ১৫ বিজিবি লালমনিরহাটের অধিন অনন্তপূর বিওপি এবং ভারতের বিএসএফ ঝিকরি ক্যাম্প এর আন্তর্জাতিক সীমান্ত পিলার ৯৪৬/৫এস দিয়ে অবৈধভাবে ভারত থেকে বাংলাদেশে প্রবেশের সময় টহলরত বিএসএফ সদস্যরা তাকে গুলি করলে সে আহত অবস্থায বাংলাদেশে প্রবেশ করে।

কুড়িগ্রাম জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. পুলক কুমার সরকার জানান, আপাতত: তার অবস্থা আশংকামুক্ত। তার পাজরের ডানদিক থেকে একটি বুলেট এবং ৮/১০টি স্প্রিন্টার বের করা হয়েছে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জেলা আইন শৃংখলা কমিটির ভার্চুয়াল মিটিংয়ে কুড়িগ্রাম ২২ বিজিবি’র অধিনায়ক লে.কর্ণেল মো. জামাল হোসেন জানান, গুলিবিদ্ধ ভারতীয় নাগরিককে নাগেশ্বরী থানা পুলিশ উদ্ধার করে কুড়িগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করে। ঘটনাটি লালমনিরহাট ১৫ বিজিবি এলাকায় ঘটেছে। এ ব্যাপারে লালমনিরহাট বিজিবি পতাকা বৈঠকের জন্য ভারতীয় বিএসএফ’র সাথে যোগাযোগ করছে।

You might also like