বিশ্বে ১০০ কোটি মানুষ মানসিক স্বাস্থ্য সংকটে ভুগছে: জাতিসংঘ

১৫

বৈশ্বিক মানসিক স্বাস্থ্য সংকট নিয়ে সতর্কতা প্রকাশ করেছেন জাতিসংঘ মহাসচিব অ্যান্তনিও গুতেরেস। শুক্রবার (১৭ জুন) মানসিক স্বাস্থ্য নিয়ে এক প্রতিবেদন প্রকাশ চালু করার ঘোষণা দেওয়ার সময় তিনি বলেন, লাখ লাখ শিশু ও যুবকসহ বিশ্বজুড়ে প্রায় একশ কোটি মানুষ মানসিক স্বাস্থ্য সংকটের মধ্যে রয়েছেন। তাদের বেশিরভাগই চিকিৎসার আওতার বাইরে।

‘বৈশ্বিক মানসিক স্বাস্থ্য-২০২২: ট্রান্সফরমিং মেন্টাল হেলথ ফর অল’ প্রতিবেদন প্রকাশ একটি ভিডিও বার্তার মাধ্যমে চালু করার সময় তিনি আরও বলেন, ‘আমরা মানসিক স্বাস্থ্য সংকটের মধ্যে বসবাস করছি।’

তিনি বলেন মানসিক স্বাস্থ্য সেবা সহজলভ্য বা পর্যাপ্ত নয়। অ্যান্তনিও গুতেরেস আরও বলেছেন যে মানসিক স্বাস্থ্যের সংকটে থাকা মানুষরা শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন, শিক্ষা ও চাকরি ক্ষেত্রে বঞ্চনা এবং অন্যান্য মানবাধিকার লঙ্ঘনের ঝুঁকিতে রয়েছেন। এই সংকটের কারণে মানবিক ও আর্থিক উভয়ই বিশাল ক্ষতি উল্লেখ করে তিনি আরও বলেন, শুধু হতাশা ও উদ্বেগের কারণে বিশ্ব অর্থনীতিতে প্রতি বছর আনুমানিক ১ ট্রিলিয়ন মার্কিন ডলার খরচ হয়।

পরিস্থিতির অবনতি ঘটিয়েছে এমন কারণগুলোকে চিহ্নিত করার ক্ষেত্রে তিনি বলেন, কোভিড-১৯ মহামারি মানসিক স্বাস্থ্য সমস্যা বাড়িয়েছে। অ্যান্তনিও গুতেরেস বলেন, এটি ভালো দিক যে মানসিক স্বাস্থ্যের গুরুত্ব ও ভঙ্গুরতা সম্পর্কে আরও সতর্ক হওয়ার দিকে পরিচালিত করেছে এটি।

জাতিসংঘ মহাসচিব সতর্ক করে বলেন, দুর্ভাগ্যের বিষয় যে অধিকাংশ দেশে, স্বাস্থ্যনীতির কৌশলে মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়টি উপেক্ষিত হয়। জাতিসংঘের এই প্রতিবেদন মানসিক স্বাস্থ্যের উন্নতির লক্ষ্যে বিভিন্ন দেশের রোডম্যাপ হিসেবে কাজ করবে।

অ্যান্তনিও গুতেরেস বলেন, কীভাবে বিষয়গুলোকে প্রয়োজন অনুযায়ী উন্নত করা যায় এবং অর্জন করা যায়, বিশেষ করে শৈশব থেকে পুরো জীবন ব্যবস্থার ক্ষেত্রে তা তুলে ধরা হবে এতে। এটি ঝুঁকি কমাতে সহায়তা করবে। সামাজিক প্রতিবন্ধকতাগুলো দূর করবে এই প্রতিবেদন। তিনি বিভিন্ন দেশের সরকার ও স্বাস্থ্য-সংশ্লিষ্টদের এই প্রতিবেদন কাজে লাগানোর সুপারিশও করেন।

You might also like