বিসিবির নির্বাচন ৬ অক্টোবর

এ মাসেই শেষ হবে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) বর্তমান পরিচালনা পর্ষদের মেয়াদকাল। গঠনতন্ত্র অনুযায়ী ৪৫ দিনের মধ্যেই শেষ করতে হবে নির্বাচন প্রক্রিয়া।

এরই মধ্যে বিসিবির পরিচালনা পরিষদের নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হয়েছে। আগামী ৬ অক্টোবর মিরপুর শেরে বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে বোর্ড রুমে হবে এই নির্বাচন।

মঙ্গলবার চলমান বোর্ডের সব শেষ সভায় চূড়ান্ত হয়ে যায় ১৭১ জন ভোটারের তালিকা। পরে রাতে নির্বাচন কমিশন ঘোষণা করে ২০২১ সালের নির্বাচনের তফসিল।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানা যায়, ৬ অক্টোবর সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত হবে ভোট গ্রহণ। সেদিনই ভোট গণনা শেষে ফল জানিয়ে দেওয়া হবে ফলাফল, ৭ অক্টোবর দেওয়া প্রকাশ করা হবে চূড়ান্ত ফল।

গত ১ সেপ্টেম্বর আইসিএবি’র (ইন্সটিটিউট অব চার্টার্ড অ্যাকাউন্ট্যান্ট অব বাংলাদেশ) সাবেক প্রেসিডেন্ট এম ফরহাদ হোসেনকে প্রধান নির্বাচন কমিশনার হিসেবে দায়িত্ব দিয়ে পাঁচ সদস্যের নির্বাচন কমিশন গঠন করে বিসিবি। নির্বাচন কমিশনের বাকি চার সদস্য হলেন সাবেক যুগ্ম সচিব মোহাম্মদ ওমর ফারুক, বিসিবির আইনি পরামর্শক মুদ্দাসির হোসেন, সুপ্রিম কোর্টের এডভোকেট মোহাম্মদ একরামুল হক এবং বিসিবির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা নিজামউদ্দিন চৌধুরী সুজন। তারাই পরিচালনা করছেন নির্বাচন।

১৭১ জন কাউন্সিলর ভোটারের খসড়া তালিকা প্রকাশ করা হবে বুধবার। সেই তালিকায় কোন আপত্তি থাকলে বৃহস্পতিবারের মধ্যে তা মীমাংসা করে প্রকাশ হবে চূড়ান্ত তালিকা।

তফসিল অনুযায়ী, শুক্র ও শনিবার মনোনয়নপত্র বিতরণ করা হবে। মনোনয়ন পত্র দাখিল করতে হবে আগামী সোমবারের মধ্যে। মনোনয়ন পত্র প্রত্যাহারের শেষ তারিখ ৩০ সেপ্টেম্বর। ওই দিন দুপুরে প্রকাশ হবে চূড়ান্ত প্রার্থী তালিকা।

বিসিবির কাউন্সিলরদের মধ্যে ২৩জনকে বোর্ড পরিচালক নির্বাচিত করা হবে। জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের মনোনয়নে পরিচালক হবে দুজন। পরে নির্বাচিত পরিচালকদের ভোটে নির্বাচিত করা হবে বোর্ড সভাপতি।