বিয়ের জন্য কনে দেখতে গিয়ে ধরা পড়লো ভুয়া এসআই!

৫৮

পুলিশ পরিচয় দিয়ে বিয়ের জন্য কনে দেখতে গিয়ে ধরা পড়লো সোহেল রানা (২৮) নামে এক ভুয়া এসআই।

মঙ্গলবার (২৯ মার্চ) সন্ধ্যার দিকে তাকে আটক করে চুয়াডাঙ্গা সদর থানা পুলিশ।

এর আগে তিনি চুয়াডাঙ্গা পৌর এলাকার শেখ পাড়ার জহুরুল ইসলাম মানিকের বাড়িতে তার মেয়েকে বিয়ের পাত্রী হিসেবে দেখতে যান। অভিযুক্ত সোহেল রানা এর আগেও পুলিশ পরিচয় দিয়ে চুয়াডাঙ্গায় প্রতারণা মামলায় গ্রেফতার হয়েছিলেন।

আটক সোহেল রানা ওরফে হিমেল কুষ্টিয়া জেলার মিরপুর থানার আমবাড়িয়া গ্রামের আজিবার মণ্ডলের ছেলে।

পুলিশ জানায়, চুয়াডাঙ্গা পৌর এলাকার শেখ পাড়ার জহুরুল ইসলাম মানিকের মেয়েকে এসআই পরিচয় দিয়ে নিজের বিয়ের পাত্রী হিসেবে দেখতে যান সোহেল রানা। তার কথাবার্তায় সন্দেহ হয় কনের পরিবারের। এসময় সোহেল রানাকে জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি যশোর মনিরামপুর থানায় কর্মরত আছেন বলে জানান। পরিচয় নিশ্চিত হওয়ার জন্য ওই থানায় যোগাযোগ করা হলে স্পষ্ট হয় যে, সোহেল রানা একজন প্রতারক। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে তাকে আটক করে এবং তার কাছ থেকে পুলিশের পোশাক ও চুরি করে আনা একটি পালসার মোটরসাইকেল জব্দ করা হয়।

চুয়াডাঙ্গা সদর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আবু সাঈদ জানান, সোহেল রানার বিরুদ্ধে একটি প্রতারণা ও চুরি মামলা দায়ের করা হয়েছে। তাকে আদালতে সোপর্দ করা হবে। তার বিরুদ্ধে চুয়াডাঙ্গা সদর থানাসহ বিভিন্ন থানায় একাধিক মামলা রয়েছে।

এর আগে ২০২১ সালের ১৯ এপ্রিল ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত আসামিদের জামিন দেওয়ার নাম করে অর্থ হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগে সোহেল রানাকে আটক করা হয়। তিনি নিজেকে পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) পরিচয় দিয়ে প্রতারণা করে আসছিলেন।

%d bloggers like this: